ঢাকাবুধবার , ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  1. সর্বশেষ

উজিরপুরে নয়ন হত্যা, ১৫ দিনেই রহস্য উদঘাটন করল পিবিআই!!

প্রতিবেদক
নিউজ এডিটর
৬ অক্টোবর ২০১৯, ১:০৮ অপরাহ্ণ

Link Copied!

রুবেল হোসেন, উজিরপুর প্রতিনিধি,বরিশাল।

বরিশালের উজিরপুরে স্কুল ছাত্র ইসরাফিল হাওলাদার নয়ন হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। থানা পুলিশের কাছ থেকে মামলার তদন্ত পিবিআই’র হাতে ন্যাস্ত করার ১৫ দিনের ব্যবধানে গত বুধবার নারায়ণগঞ্জ থেকে নয়ন হত্যায় অন্যতম অভিযুক্ত আমিনুল ইসলামকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরদিন গত বৃস্পতিবার বরিশাল আদালতে নয়ন হত্যার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় আমিনুল। মাদক (ড্যান্ডি) সেবনের কথা প্রকাশ করে দেয়ায় স্কুলছাত্র নয়নকে মাদকসেবীরা হত্যা করেছে বলে জানিয়েছে পিবিআই’র পরিদর্শক মো. মাহফুজুর রহমান।

আদালতে দেয়া স্বীকারোক্তিতে আমিনুল ইসলাম আমিন বলেন, গত ২৭ এপ্রিল ড্যান্ডি সেবনের তথ্য ফাঁস করার পর ওইদিন দুপুরে উজিরপুরের ভরসাকাঠী এলাকায় একটি ব্রিজের উপর বসে নয়নকে হত্যার পরিকল্পনা করে আশিক। পরিকল্পনা অনুযায়ী ওইদিন সন্ধ্যায় নিজ বাড়ি থেকে নয়নকে ডেকে নেয় বখাটে আশিক। এরপর ভরসাকাঠী গ্রামে গির্জাঘর নামে একটি পরিত্যক্ত ঘরে নয়নের হাত-পা বেঁধে মারধর করে তার কাছে থাকা মুঠোফোন দিয়ে চট্টগামে অবস্থানরত নয়নের বাবা-মায়ের কাছে ২০ লাখ টাকার মুক্তিপণ দাবি করে আশিক। মুক্তিপণ না দিলে নয়নকে হত্যা করা হবে বলে আশিক হুমকি দেয়। ওইদিন রাত ৯টার দিকে গির্জাঘরের পাশের নদী পাড় হয়ে রমজানকাঠী গ্রামে মমিনদের বাড়ির পাশে পাটক্ষেতে নিয়ে যাওয়া হয় নয়নকে। সেখানে আমিনুল ও মমিনুল নয়নের পা চেপে ধরে এবং আশিক একটি ধারালো ছুরি দিয়ে নয়নকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে ও ইট দিয়ে মাথা থেঁতলে তার মৃত্যু নিশ্চিত করে। পরে তার লাশ বস্তায় ভরে ইট বেঁধে নদীতে ফেলে দেয়া হয়। হত্যাকাণ্ডের পর ঘাতকরা বাড়িতেই অবস্থান করেছিল। পরদিন ২৮ এপ্রিল সকালে স্থানীয়দের দেয়া খবরের ভিত্তিতে রমজানকাঠী সংলগ্ন সন্ধ্যা নদীর পাশে স্কুল ছাত্র নয়নের বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় নয়নের বাবা সোবাহান হাওলাদার বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। প্রথমে মামলাটি তদন্ত করে বাবুগঞ্জ থানা পুলিশ। কিন্তু তাদের তদন্তে অগ্রগতি না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত পিবিআই’র তদন্তে বেরিয়ে এসেছে নয়ন হত্যার প্রকৃত ঘটনা।
সোবাহান হাওলাদার অভিযোগ করেন, মামলার শুরু থেকেই বাবুগঞ্জ থানা পুলিশ তদন্তে গাফেলতি করেছিল। তারা প্রকৃত খুনিদের বাদ দিয়ে নির্দোষ মানুষকে অভিযুক্ত করার চেষ্টা করে। এবার পিবিআই’র তদন্তে প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে এসেছে।

উজিরপুরের বামরাইল এবি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র ও একই উপজেরার ভরসাকাঠী গ্রামের সোবাহান হাওলাদারের ছেলে ইসরাফিল হাওলাদার নয়ন হত্যাকারীদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের দাবিতে ইতিপূর্বে মানববন্ধন, সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ মিছিল সহ নানা কর্মসূচি পালন করেন স্থানীয়রা।

111 Views

আরও পড়ুন

রামুতে ‘দৈনিক সকালের সময়’ পত্রিকার বর্ষপূর্তি উদযাপন

শেরপুরে আগুনে পুড়ে সাবেক মহিলা মেম্বারসহ নিহত-২

ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্ক বন্ধুত্বের, এ সম্পর্ক দিন দিন আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে

আদমদীঘিতে চার মাসের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার

দোয়ারাবাজারে বিপুল পরিমাণ জাল নোট ও তৈরির প্রিন্টারসহ আটক ২

মাস্টার রুহুল আমিনের মৃত্যুতে সর্বত্রে শোকের ছায়া

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে গ্রীন ভয়েসের বিতর্ক প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব

মাদারীপুরে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ম’দ্য’পা’নের ভিডিও ভাইরাল

রাজশাহী এডিটরস ফোরামের কমিটি গঠন

সমাজসেবক মিজানুর রহমান ভুইয়া বাবুল এর ৫১তম জন্মদিন পালিত

সুগন্ধা বিচকে ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণের নির্দেশনা বাতিল

অমর একুশে বইমেলায় গাঙচিল প্রকাশিত বিভিন্ন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করলেন রাসিক মেয়র