ঢাকাসোমবার , ৪ জুলাই ২০২২
  1. সর্বশেষ
  2. সারা বাংলা

চকরিয়ায় খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ তিনজনকে শাস্তিমূলক বদলী

প্রতিবেদক
নিউজ এডিটর
৮ এপ্রিল ২০২২, ১২:৫৩ পূর্বাহ্ণ

Link Copied!

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধিঃ

অবশেষে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ তিনজনকে শাস্তিমূলক বদলী করা হয়েছে। মঙ্গলবার ৫ এপ্রিল চট্টগ্রাম আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. জহিরুল ইসলাম খান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে চিরিংগা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুর রহমান খাঁনকে বদলী করা হয়। তাকে চট্টগ্রাম খাদ্য নিয়ন্ত্রক দপ্তরে ন্যাস্ত করা হয়েছে।

গত ২২ মার্চ রাত ১০টার দিকে বিএমচর ইউনিয়নের খাদ্য বান্ধব ডিলার জুবাইরুল ইসলামের গুদামে অতিরিক্ত চাল রাখার দায়ে কক্সবাজার জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক রূপান্তর চাকমা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেপি দেওয়ানের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে। ওইসময় গুদামে থাকা অতিরিক্ত ১৮০ বস্তা চাল জব্দ করা হয়। পরবর্তীতে চকরিয়া উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক তপন মল্লিক বাদী হয়ে গুদামে অতিরিক্ত ও নিম্মমানের চাল রাখার দায়ে ডিলার জুবাইরুল ইসলামকে আসামী করে চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে।
এঘটনায় জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তাকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এক সপ্তাহ তদন্তে চিরিঙ্গা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুর রহমান খান ডিলার জোবাইরুল ইসলামের গুদামে অতিরিক্ত ও নিম্মমানের চাল রাখার বিষয়টি প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি। মঙ্গলবার (৫ এপ্রিল) তদন্ত কমিটির সুপারিশে চিরিংগা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, নিরাপত্তা প্রহরী টিকলু চৌধুরী ও আলাউদ্দিনকে শাস্তিমূলক বদলী করা হয়।

জানা যায়, চিরিঙ্গা খাদ্য গুদাম থেকে গত ১৭ মার্চ সংগ্রহ করা ৩৯১ বস্তা চাল তার নিজের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান ‘চাউল বিতান’ গুদামে সংরক্ষণ করা হয়। ভিয়েতনাম থেকে আমদানি করা ৩৯১ বস্তা চাল দেওয়ার কথা থাকলেও খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুর রহমান খান তাকে নিম্মমানের চাল দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের ছাড়পত্রে খাদ্য গুদাম থেকে সংগ্রহ করা চাল গুলো পরীক্ষা করে দেখতে পান ৩৯১ বস্তা চালের মধ্যে ১১ বস্তা ভিয়েতনামের চাল হলেও বাকি ৩৮০ বস্তা নিম্মমানের স্থানীয় চাল। ডিলার জুবাইরুল ইসলাম নিম্মমানের চাল দেওয়ার বিষয়টি উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক তপন মল্লিককে তাৎক্ষণিক অবহিত করেন। বিষয়টি জানাজানি হলে ২০ মার্চ রাতে চিরিঙ্গা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুর রহমান খানের নির্দেশে দু’টি ট্রাকে করে ৩৮০ বস্তা ভিয়েতনামের চাল গুদামে রাখা হয়। সেখান থেকে একটি গাড়িতে ২০০ বস্তা নিম্মমানের চাল নিয়ে গেলেও আরও ১৮০ বস্তা চাল রাত বেশি হয়ে গেছে অজুহাতে গুদামে রেখে যায়। চাল গুলো পরের দিন সকালে নিয়ে যাওয়ার আশ্বাসও দেওয়া হয়। চাল গুলো গুদামে পড়ে থাকে। খাদ্য গুদামের ওসি ও উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক নিন্মমানের চাল বিতরণ করতে চাপ প্রয়োগ করেন ডিলারকে। ২২ মার্চ রাতে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেপি দেওয়ান ও উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা গুদামে থাকা ১৮০ বস্তা অতিরিক্ত ও নিম্মমানের চাল জব্দ করেন।
স্থানীয়রা জানান, চিরিঙ্গা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুর রহমান খানকে বাচাতে উল্টো ডিলার জোবাইরুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে নিন্মমানের চাল বিতরণের অভিযোগে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তাকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তদন্তে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুর রহমান খান জড়িত থাকার প্রমাণিত হলে ৫ এপ্রিল চট্টগ্রাম আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. জহিরুল ইসলাম খান চিরিংগা খাদ্য গুদামে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুর রহমান খাঁনকে শাস্তিমূলকভাবে বদলী করে।

আরও পড়ুন

নোয়াখালীতে একাধিক মামলার আসামি লাল আজাদ গ্রেপ্তার

প্রেম করে বিয়ে:স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্যে নববধূর আত্মহত্যা

বৃদ্ধের পায়ুপথে টর্চলাইট ঢুকিয়ে নির্যাতন: যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার

নোয়াখালীতে বিআরটিসি বাস পুনরায় চালুর দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল

হরিপুরে আ‘লীগের সম্মেলনকে ঘিরে নিবার্চনী হাওয়া বইছে

গোয়েন্দা পুলিশের জালে ২ ইয়াবা কারবারি

মোঃ আবু নাঈম এর কবিতা : বাংলাদেশ

রামুতে প্রতিবেশীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে গৃহবধূ’র বি*ষপানে আত্ন*হত্যা

প্লাস্টিক মানবসভ্যতার হুমকিঃ সিইএইচআরডিএফ

ভৈরবে এনটিভির বর্ষপূর্তি উদযাপিত

কক্সবাজারের প্রতিপক্ষের দায়ের কোপে ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল নিহত

ছাতকে বন্যায় সাবরিনা ট্রেডার্স’র লক্ষ লক্ষ টাকার ক্ষতি