ঢাকাসোমবার , ৪ জুলাই ২০২২
  1. সর্বশেষ

কিশোর গ্যাং বনাম আমাদের দৃষ্টি ভঙ্গি।

প্রতিবেদক
নিউজ এডিটর
৭ এপ্রিল ২০২২, ১২:৫২ অপরাহ্ণ

Link Copied!

সম্প্রতি সময়ে আলোচিত এবং সমালোচিত শব্দ কিশোর গ্যাং।তবে এইখানে দুটি শব্দের ব্যাপক অর্থ আছে। গ্যাং শব্দটি বাদ দিয়ে যদি কেবল কিশোরের অর্থ বের করার চেষ্টা করি তবে এটির চমৎকার একটা ভাবগত অর্থ দাঁড়ায়। এটিকে যদি আরেকটু বিশ্লেষণ করি শব্দটির অর্থ এমন দাঁড়ায়, বাল্য কালের সমাপ্তি করে যৌবনে পা দেওয়ার আগের মূহুর্তটাই হলো কিশোর বয়স। পৃথিবীর যত পন্ডিতগন যুবকদের নিয়ে বড়াই করেছেন তাদের কিশোরকাল কখনো শান্ত শিষ্ট ছিল না।

যে মানুষ তার কিশোর বয়সে দূরন্তপনা দেখাতে পারেনি সে মানুষ যৌবনে পা দিয়েও সমাজ পরিবর্তনের স্বপ্ন কখনো দেখতে পারেনি।পারেনি বলছি এই কারনেই, কিশোরকাল হলো যৌবনের প্রস্তুতি সময়।এই সময়টাতে সে যে ভাবে প্রশিক্ষিত হবে যৌবনে সে সেটির প্রতিফলন ঘটাবে।

এবার আসা যাক গ্যাং শব্দটির ব্যাপকতা নিয়ে। গ্যাং শব্দটির দ্বারা একটি গ্রুপ বুঝালেও এটি খারাপ গ্রুপ বুঝানোর জন্যই ব্যবহার করা হয়। এমন একটি শব্দ যখন কিশোরের সাথে জুড়ে দিবেন তখন বিষয়টি ষাঁড়ের সামনে লাল কাপড় ঝুলিয়ে দেওয়ার মতো বিপদজনক হয়।

একজন কিশোরকে আপনি একটা তেজি ঘোড়ার সাথে তুলনা করতে পারেন, যে সব সময় সব শক্তি দিয়ে ছুটে চলার জন্য প্রস্তুত।তার ধর্মই হলো বাঁধা না মেনে ছুটে চলা।তার ধর্মই হলো নেতৃত্ব দেওয়ার একটা আগ্রহ। তার ধর্মই হলো সবার উপর আমি সেরা প্রমাণ করা।

ঠিক এই সময়টাতেই আপনাকে কিংবা সমাজকে হতে হবে তেজি ঘোড়ার উপর একজন দক্ষ ঘোড়সওয়ারি। অর্থাৎ একটা তেজি ঘোড়াকে যেই ভাবে কৌশলে সতর্কতার সাথে পরিচালনা করতে হয় ঠিক সেই ভাবে একজন কিশোরকে পরিচালনা করতে হবে। আপনি চাইলেই যেমন একটি তেজি ঘোড়াকে ভাল খারাপ দুই ভাবেই পরিচালনা করতে পারেন ঠিক সে ভাবেই একজন কিশোকে আপনি কিংবা সমাজ পরিচালনা করতে পারেন।

এবার বলা যাক আমাদের সমাজের চিত্রপঠ নিয়ে।আমরা আমাদের কিশোরদের সঠিক ভাবে কাজে না লাগিয়ে তাদের দূরন্তপনাকে ব্যবহার করে তাদেরকে বিপদগামী করছি।চলুন তবে আরেকটু ভেতর থেকে ঘুরে আসা যাক।একজন কিশোরকে লক্ষ্য করলে দেখবেন সে সবার উপর খবরদারী করার চেষ্টা করছে। মানে সব কাজে সবার আগে সে এগিয়ে গিয়ে করার চেষ্টা করছে কারণ এইখানে তার মধ্যে একটা জিনিসই কাজ করে, “আমাকে শ্রেষ্ঠ প্রমাণ করতেই হবে। (ভাল/খারাপ)আমি সবার সেরা।” এই সবার চেয়ে নিজের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করার জন্য একজন আরেকজনের সাথে ঐক্যবদ্ধ হয়।এই ঐক্যবদ্ধ হওয়া বা নেতৃত্ব দেওয়ার ইচ্ছেটাকেই ব্যবহার করি আমি আপনি কিংবা সমাজ।

উপলব্ধি করার চেষ্টা করলে বুঝতে পারবেন সমাজের খারাপ কাজ গুলোতে যেমন কিশোরদের অংশীদারিত্ব বেশী থাকে ঠিক তেমনি ভাল কাজ গুলোতেও তাদের অংশগ্রহণ থাকে বেশী।স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গুলোর দিকে তাকালে বুঝতে পারবেন একজন কিশোরকে ভাল ভাবে পরিচালনা করা গেলে সমাজের চিত্র কেমন পরিবর্তন হয়।আবার বিভিন্ন রাজনৈতিক দল গুলোর অপরাজনীতির দিকে তাকালে বুঝা যায় একজন কিশোরের নেতৃত্বের ইচ্ছেকে ভুল ভাবে পরিচালনা করে সমাজকে কিভাবে বিষিয়ে তোলা যায়।

এতো কথার সারমর্ম হলো পরিচালনা।একজন কিশোর কখনো নিজে নিজে পরিচালিত হয় না।তার মধ্যে দূরন্তপনা আছে, ছুটে চলার তীব্র ইচ্ছে আছে কিন্তু সে কিভাবে পরিচালিত হবে তা ঠিক করে আমি আপনি কিংবা সমাজ।তাই একজন কিশোরকে বা একদল কিশোরকে গ্যাং লিডার বা গ্যাং বানানোর আগে তার পরিচালককে বিচার করুন।একজন কিশোরকে দোষ দেওয়ার আগে সে কিশোরের সমাজকে বিচার করুন।কিশোরকে বিচার করার আগে কিশোরের পরিচালককে বিচার করুন।

ওয়াহেদ আমির
যুগ্ম বার্তা সম্পাদক
নিউজ ভিশন বিডি

আরও পড়ুন

নোয়াখালীতে একাধিক মামলার আসামি লাল আজাদ গ্রেপ্তার

প্রেম করে বিয়ে:স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্যে নববধূর আত্মহত্যা

বৃদ্ধের পায়ুপথে টর্চলাইট ঢুকিয়ে নির্যাতন: যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার

নোয়াখালীতে বিআরটিসি বাস পুনরায় চালুর দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল

হরিপুরে আ‘লীগের সম্মেলনকে ঘিরে নিবার্চনী হাওয়া বইছে

গোয়েন্দা পুলিশের জালে ২ ইয়াবা কারবারি

মোঃ আবু নাঈম এর কবিতা : বাংলাদেশ

রামুতে প্রতিবেশীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে গৃহবধূ’র বি*ষপানে আত্ন*হত্যা

প্লাস্টিক মানবসভ্যতার হুমকিঃ সিইএইচআরডিএফ

ভৈরবে এনটিভির বর্ষপূর্তি উদযাপিত

কক্সবাজারের প্রতিপক্ষের দায়ের কোপে ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল নিহত

ছাতকে বন্যায় সাবরিনা ট্রেডার্স’র লক্ষ লক্ষ টাকার ক্ষতি