ঢাকাসোমবার , ৪ জুলাই ২০২২
  1. সর্বশেষ

“ভেবে দেখার আহ্বান”—সামিউর রহমান প্রধান

প্রতিবেদক
নিউজ এডিটর
২০ মার্চ ২০২২, ১২:২৪ অপরাহ্ণ

Link Copied!

একটু কি ভেবে দেখা যায় না!!!

কি করছি আমরা? কি করে সময় পার করছি? কিসে আমাকে আমার রব থেকে দূরে সড়িয়ে রাখলো?

“ও মানুষ, কীসে তোমাকে তোমার দয়াময় প্রতিপালকের কাছ থেকে দূরে নিয়ে গেলো? যিনি তোমাকে সৃষ্টি করে যথাযথ আকৃতি দিয়েছেন। তারপর তোমাকে ভারসাম্য দিয়েছেন। তিনি যেভাবে চেয়েছেন, সেভাবেই তোমাকে তৈরি করেছেন।” —আল-ইনফিত্বার ৬-৮

একজন অফিস কর্মকর্তা তার বসের কথা মেনে চলে, কেনো? কারণ মাস শেষে তাকে একটা পারিশ্রমিক তথা বেতন দেওয়া হবে। তা দিয়ে সে তার দুনিয়ার সংসার চালাবে, কিছু টাকা হয়তোবা জমাবে, সেই জমানো টাকা দিয়ে জায়গা-জমিন কিনবে, বাড়ি-গাড়ি করবে। আর এর জন্যই সে বসের প্রতিটি কথা অক্ষরে অক্ষরে পালন করার চেষ্টা করে, তাকে খুশি করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে।

আচ্ছা!! এই পারিশ্রমিক, এই জায়গা-জমি, বাড়ি-গাড়ি কি জান্নাতের একটুকরো মাটির চেয়ে মুল্যবান? কখনও না।এই দুনিয়া ৭০ বার বিক্রি করলেও জান্নাতের একটা ইটের মূল্যের সমান হবে না।
নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, আল্লাহ তাআলা বলেছেন—’আমি আমার নেক বান্দাদের জন্য এমন সব জিনিস প্রস্তুত রেখেছি যা কখনো কোন চক্ষু দেখেনি, কোন কান শুনেনি এবং কোন অন্তঃকরণ কখনো কল্পনাও করেনি। আল-কুরআনে এর সত্যায়ন রয়েছে “কেউ জানে না তাদের জন্য নয়ন প্রীতিকর কী লুকায়িত রাখা হয়েছে তাদের কৃতকর্মের পুরস্কার স্বরূপ।” (সূরা সাজদাঃ ১৭)

সামান্য পারিশ্রমিকের জন্য যদি বসের আনুগত্য করতে পারি, আর সর্বোত্তম পুরষ্কার জান্নাতের জন্য কি রবের আনুগত্য করা কি আমার জন্য আবশ্যক না? এই নিছক পারিশ্রমিকের জন্য যদি বসের প্রতিটি কথা অক্ষরে অক্ষরে পালন করতে হয়, জান্নাত লাভ করার জন্য কি আল্লাহ তায়ালার আদেশ-নিষেধ যথাযথ ভাবে পালন করতে হবে না? তার ইবাদত যথাযথ ভাবে করতে হবে না? অবশ্যই করতে হবে।
إِيَّاكَ نَعْبُدُ وَإِيَّاكَ نَسْتَعِينُ

অর্থ : আমরা একমাত্র তোমারই ইবাদত করি এবং শুধুমাত্র তোমারই সাহায্য প্রার্থনা করি। (সূরা ফাতিহা -০৪)

ভাইয়েরা… দ্বীনের দিকে ফিরে আসো, দ্বীনকে পরিপূর্ণ ভাবে পালন করো। ইসলাম শুধু একটা ধর্ম নয়, এটি একটি পরিপূর্ণ জীবন ব্যাবস্থা। আমাদের দৈনিক প্রতিটি কাজের দিক-নির্দেশনা আছে দ্বীন ইসলামে। আমাদের উচিৎ সেই সর্বোত্তম পুরষ্কার জান্নাত পাওয়ার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করা, হারাম থেকে দূরে থাকা, আল্লাহ তায়ালার কাছে ক্ষমা চাওয়া। আপনি যদি দ্বীনে ফিরে আসেন আল্লাহ তায়ালার মতো খুশি আর কেও হবেন না। আমিও খুশি হবো যখন দেখবো প্রতিজন মুসলিম আল্লাহ তায়ালা কে ভয় করে,হারাম থেকে বেঁচে থাকার চেষ্টা করে।

إني أحبك في الله.

দোয়া: ইন্নী উহিব্বুকা ফিল্লা-হি

অর্থ: আমি আল্লাহর জন্য আপনাকে ভালোবাসি।

হিদায়াত দেওয়ার মালিক আল্লাহ। আল্লাহ তায়ালা এরশাদ করেন —
“নিশ্চয় তুমি যাকে ভালবাস তাকে তুমি হিদায়াত দিতে পারবে না; বরং আল্লাহই যাকে ইচ্ছা হিদায়াত দেন। আর হিদায়াতপ্রাপ্তদের ব্যাপারে তিনি ভাল জানেন।” (আল-কাসাস: ৫৬)

কুরআন নিয়ে গবেষণা করুন,ভাবুন, চিন্তা করুন। কুরআনে আল্লাহর তায়ালার প্রতিটা কথাকে অন্তরের চোখ দিয়ে দেখার চেষ্টা করুন। আল্লাহর রাসুল (সা) এর দেখানো পথে আল্লাহর পানে ফিরে আসুন।
একজন পরিপূর্ণ মুসলিম তথা মু’মিন হওয়ার চেষ্টা করুন। আল্লাহ তায়ালা তাওফিক দান করুক।

ওয়ামা তাওফিকি ইল্লা বিল্লাহ।

আরও পড়ুন

নোয়াখালীতে একাধিক মামলার আসামি লাল আজাদ গ্রেপ্তার

প্রেম করে বিয়ে:স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্যে নববধূর আত্মহত্যা

বৃদ্ধের পায়ুপথে টর্চলাইট ঢুকিয়ে নির্যাতন: যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার

নোয়াখালীতে বিআরটিসি বাস পুনরায় চালুর দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল

হরিপুরে আ‘লীগের সম্মেলনকে ঘিরে নিবার্চনী হাওয়া বইছে

গোয়েন্দা পুলিশের জালে ২ ইয়াবা কারবারি

মোঃ আবু নাঈম এর কবিতা : বাংলাদেশ

রামুতে প্রতিবেশীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে গৃহবধূ’র বি*ষপানে আত্ন*হত্যা

প্লাস্টিক মানবসভ্যতার হুমকিঃ সিইএইচআরডিএফ

ভৈরবে এনটিভির বর্ষপূর্তি উদযাপিত

কক্সবাজারের প্রতিপক্ষের দায়ের কোপে ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল নিহত

ছাতকে বন্যায় সাবরিনা ট্রেডার্স’র লক্ষ লক্ষ টাকার ক্ষতি