ঢাকামঙ্গলবার , ৩১ জানুয়ারী ২০২৩
  1. সর্বশেষ

১৬৫০ জন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তার দ্রুত নিয়োগ দাবীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর নিয়োগ প্রার্থীর খোলা চিটি।

প্রতিবেদক
নিউজ এডিটর
৯ মে ২০২১, ১:১৩ পূর্বাহ্ণ

Link Copied!

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,

প্রথমে আমার সালাম নিবেন, আসসালামুআলাইকুম। আশা করি মহান আল্লাহর অশেষ রহমতে আপনি ভালো আছেন।আপনার সুনিপুণ নেতৃত্বের গুণে আমরা নিম্ম মধ্যম আয়ের দেশে এবং বর্তমানে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নিত হয়েছি। দেশের সকল সেক্টর এগিয়ে যাচ্ছে তার সাথে পিছিয়ে নেই আমাদের কৃষি সেক্টরও। আমরা খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করে এখন বাইরে রপ্তানি করতে পারি। কিন্তু করোনা মহামারীর জন্য এখন আমাদের খাদ্যের মজুত সীমিত হয়ে এসেছে, তা নিশ্চয়ই আপনি অবগত আছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এর আরও একটি কারণ কারণ হচ্ছে খাদ্য উৎপাদনে কৃষকের সাথে মাঠ পর্যায়ে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরও কাজ করে। আর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মাঠ পর্যায়ে কর্মকর্তা হলেন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ। বর্তমানে মাঠ পর্যায়ে কাজ করা এ উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তার অনেক পদ শূন্য, যার ফলে আমাদের দেশের প্রান্তিক কৃষকরা প্রকৃত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
আপনি হয়ত অবগত আছেন, কৃষি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এর উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগের জন্য সার্কুলার প্রকাশ করেছিল গত ২৩ জানুয়ারী ২০১৮ তে। প্রায় দুই বছর পর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ এর মাধ্যমে প্রথমে প্রিলি পরীক্ষা নেন ১৭জুলাই ২০১৯ সালে। প্রায় আটাশ হাজারের অধিক চাকরি প্রত্যাশি এ প্রিলি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করেন। এর এক সপ্তাহ পর প্রিলি পরীক্ষার রেজাল্ট প্রকাশিত হয়। এ প্রিলি পরীক্ষায় নয় হাজার মত প্রার্থীকে লিখিত পরীক্ষার জন্য উত্তীর্ণ করেন আইবিএ এবং ২৫ আগস্ট ২০১৯ সালে রিটেন পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ লিখিত পরীক্ষায় ৫১১৪ জনকে ভাইবা পরীক্ষার জন্য চুড়ান্ত করা হয়। ২০১৯ সালের ডিসেম্বর থেকে দীর্ঘ দেড় মাস ভাইবা পরীক্ষা নিয়ে অবশেষে ২০২০ সালের ১৭ই জানুয়ারী ১৬৫০ জনকে প্রাথমিক ভাবে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা হিসেবে তালিকা প্রকাশ করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের নিয়োগ কমিটি। ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০ সালে আমাদের অঞ্চল ভিত্তিক উপ-পরিচালকের কার্যালয়ে পুলিশ ভেরিফিকেশন করার জন্য সমস্ত ডকুমেন্টস জমা দিয়েছিলাম। আমাদের পুলিশ ভেরিফিকেশন সহ সবকিছু কার্যক্রম শেষ হয়েছে এখন প্রায় ১৭ মাস হতে চলছে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
কিন্তু অতি দুঃখের বিষয় এই হলো , আজকে দীর্ঘ ১৭ মাস পেরিয়ে যাচ্ছে তবুও আমাদের যোগদান করাচ্ছেন না সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। আমরা সুপারিশ প্রাপ্ত উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা- ১৬৫০ জনের পক্ষে অনেক বার স্মারকলিপি দিয়েছি আপনি বরাবর, মাননীয় কৃষি মন্ত্রী, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এর সন্মানিত মহাপরিচালক বরাবর, তারপরেও আমাদের যোগদান এখনো সম্পূর্ণ করেনি।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
এছাড়াও আমরা সুপারিশ প্রাপ্ত ১৬৫০ জন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা গত ১৪ই অক্টোবর ২০২০ সালে জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করি। তারপরেও কোন সুরাহার পথ দেখিনি ১৬৫০ জন সুপারিশ প্রাপ্ত উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ। আমরা আবার ১৩ই মার্চ ২০২১ সালে এটিএন বাংলায় চ্যানেলে আমাদের দুঃখ ও দূর্দশা নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এ প্রতিবেদনে আমাদের ১৬৫০ জনের সাথে সাথে আমাদের ১৬৫০টি পরিবারের হতাশা এবং দুঃখ দূর্দশার চিত্র তুলে ধরেছেন। এ প্রতিবেদনে আমাদের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক মোঃ আসাদুল্লাহ স্যারও কথা বলেছেন। এরপর আবার এ বছরের ১৫ই মার্চ জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে শান্তিপূর্ণ ভাবে মানববন্ধন করি, তারপরেও এখন পর্যন্ত আমাদের যোগদান করানো হয়নি।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
এসব কিছু করে আজকে আমরা হাঁপিয়ে উঠছি, দীর্ঘ ১৭টা মাস ধরে অপেক্ষা প্রহর যেন শেষ হচ্ছেনা আমাদের কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর কবে আমাদের যোগদান করাবে সঠিক ভাবে কিছুই বলছেনা। আমাদের ১৬৫০ জনের জীবন খুব দুঃখ-দূর্দশা এবং মানবেতরের মধ্যে দিয়ে অতিবাহিত হচ্ছে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
দীর্ঘ দিন যাবত নিয়োগ আটকে থাকার কারণে মাঠ পর্যায়ে বিপুলসংখ্যক উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত জনবলের সংকট তৈরি হয়ে আছে। তৃণমূল পর্যায়ে সরাসরি কৃষককের কাছে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা গনই সেবা- পরামর্শ, আধুনিক চাষাবাদ, আধুনিক প্রযুক্তি, আধুনিক যন্ত্রপাতির ব্যবহার, বিভিন্ন ফসলের বীজ, সার, জৈব কৃষি, সমন্বিত জৈব বালাইনাশক সম্পর্কে প্রত্যক্ষ ভাবে পরামর্শ ও সহযোগিতা দিয়ে থাকেন। কিন্তু মাঠ পযার্য়ে এই উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা পদে প্রায় ৪০০০ হাজারের অধিক পদ ফাঁকা হয়ে আছে যা আমাদের মাননীয় কৃষি মন্ত্রী মহোদয় অবগত আছেন। যার ফলে কৃষির কাঙ্কিত উৎপাদনের লক্ষ মাত্রা এবং কৃষকের কাছে সেবার মান পৌঁছাতে বিঘ্নিত হচ্ছে।

এই করোনা কালীন দুঃসময়ে আমরাও দেশের কাজে, দেশের কৃষি উন্নয়নে, দেশকে টেকসই কৃষির স্বয়ংসম্পূর্ণতা ও নিরাপদ বিষমুক্ত খাদ্যর স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের জন্য কৃষক ভাইদের সুন্দর পরামর্শ দিয়ে আমাদের দেশের কৃষিকে আরও একধাপ এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
আপনি আমাদের মাননীয় কৃষি মন্ত্রী, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মাননীয় মহা-পরিচালক মহোদয় সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অবহিত করে আমাদের এ কৃষি ব্যাবস্থাকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য এবং কৃষক ভাইদের নিয়ে আপনার ডিজিটাল সরকারের মহা পরিকল্পনা গুলো সরাসরি প্রান্তিক চাষিদের মাঝে পৌঁছে দেওয়ার জন্য সুপারিশ প্রাপ্ত আমাদের ১৬৫০ জন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের দ্রুত নিয়োগ দেওয়ার জন্য আপনার একান্ত হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
মহান আল্লাহর দরবারে আপনার সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু কামনা করছি। আপনার হাত ধরেই এগিয়ে যাবে আমাদের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা। আর সেই সোনার বাংলা বিনীর্মানের এক এক জন একনিষ্ঠ সৈনিক এবং সারথি হয়ে কাজ করব আমরা ১৬৫০ জন সুপারিশ প্রাপ্ত উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ।

সুপারিশ প্রাপ্ত-১৬৫০ জন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তার পক্ষে,
ডি. কৃষিবিদ এস. এম. বুলবুল আহমদ রয়েল।

আরও পড়ুন

২০ টাকার ইনজেকশন হাজার টাকায় বিক্রি: ৪০ হাজার টাকা জরিমানা

নোয়াখালীতে সরকারি চাকরিজীবীদের আবাসিক ফ্ল্যাটের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

বিরামপুরে বিএনপি’র উদ্যোগে কম্বল ও সোয়েটার বিতরণ

নওগাঁর পত্নীতলায় উপজেলার বিভিন্ন দপ্তর পরিদর্শন করলেন ডিসি

সম্পাদক ও কলামিস্ট জব্বার হোসেনের জন্মদিন

মৌলভীবাজারে ক্যাম্পেইন ফর মিডিয়া ফ্রিডম (সিএমএফ) এর উদ্যোগে শীত বস্ত্র বিতরণ

দোয়ারাবাজারে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে সংঘর্ষ, আহত ৬

পাহাড়ের তিন জেলায় এলজিইডি'র মানব বন্ধন ;
চসিক প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলীর ওপর হামলার নিন্দা, প্রতিবাদ

দূ্র্গম পার্বত্য চট্টগ্রাম’র দুর্গম দুমদুম্যা এলাকায় সীমান্ত সড়ক প্রকল্প পরিদর্শন করলেন সেনাপ্রধান

কুতুবদিয়ায় মিয়ার পাড়া নতুন কবরস্থানের জায়গা বিক্রির পায়তারা

ঘোড়াঘাটে এমপি শিবলি সাদিকের পক্ষে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থরা পেল টিন ও চেকসহ বিভিন্ন সামগ্রী

ঠাকুরগাঁওয়ে সাংবাদিকের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন