ঢাকাসোমবার , ১৫ অগাস্ট ২০২২
  1. সর্বশেষ
  2. সারা বাংলা

লামা সদর টু বানিয়ারছড়া বাজার সড়কটির নির্মাণ কাজ চলছে দ্রুতগতিতে , ভারি যানচলাচলে বিঘ্নিত হচ্ছে নির্মাণ কাজ

প্রতিবেদক
নিউজ ভিশন
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৯:৫৩ অপরাহ্ণ

Link Copied!

লামা থেকে ফিরে , আবু বক্কর ছিদ্দিক :

পাহাড়ী জনপদ বান্দরবান জেলার লামা বাজার- গজালিয়া- ফাইতং বাজার- বানিয়ারছড়া বাজার পর্যন্ত দীর্ঘ সড়কটির নির্মাণ কাজ চলছে ১ বছর ধরে। এ সড়কে অত্যাধুনিকভাবে নির্মিত হচ্ছে দৃষ্টিনন্দন ৪টি ব্রীজ সহ বহু কালভার্ট। এছাড়া সড়কের দু’পাশে নির্মিত হচ্ছে দৃষ্টিনন্দন ড্রেইন সহ গাইড ওয়াল । তবে ব্রিক ফিল্ডের ভারি যানবাহনের কারণে সড়ক, ড্রেইন ও গাইড ওয়াল ভেঙ্গে খান খান হয়ে যাচ্ছে । এ সড়ক নির্মাণ কাজ শেষ হলে লামা সদরের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হবে । যাত্রীরা এ সড়কটি ব্যবহার করতে পারলে এক দিকে যেমন সময় সাশ্রয় হবে অন্যদিকে অর্থও সাশ্রয় হবে বলে মনে করেন এ উপজেলার লোকজন । এ দৃষ্টি নন্দন সড়কটি রক্ষা করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সু-নজর রাখা প্রয়োজন হয়ে পড়েছে । অপর দিকে ফাইতং বাজার থেকে বানিয়ার ছড়া বাজার পর্যন্ত সড়কটিতে মেরামতের হাত না দেয়ায় এখন সড়কের উপর বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে । ফলে উক্ত সড়ক দিয়ে যানচলাচলের যেমন বিঘ্নিত ঘটছে তেমনি ভাবে কোমলমতী ছাত্র-ছাত্রীদেরও পোহাতে হচ্ছে অবনীয় দুর্ভোগ ।
লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের লোকজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে , লামা উপজেলার পাশ্ববর্তী চকরিয়া উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নের অধিকাংশ লোকের জমি রয়েছে এ উপজেলায় । এমন কি বিভিন্ন প্রজাতীর বাগান , ব্যবসা প্রতিষ্টান ও ইট ভাটা সহ বহু প্রতিষ্টানের পরিচালক চকরিয়া অঞ্চলের । এছাড়া লামা উপজেলার সদরের সাথে এক মাত্র যোগাযোগের মাধ্যম ছিল ফাঁসিয়াখালী হাঁসের দিঘী টু লামা বাজার সড়কটি । লামা উপজেলার আজিজ নগর ও ফাইতং ইউনিয়নের লোকজনকে দ্বীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে হাঁসের দিঘী হয়ে লামা সদরের সাথে যোগযোগ করতে হত । জনগনের এ দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বানিয়ার ছড়া বাজার টু লামা বাজার সড়কটি নির্মাণের উদ্যোগ নেন । ফলে উক্ত মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বহু দেয়ান – তকবির করে এ দ্বীর্ঘতম সড়কটি নির্মাণের জন্য সরকার থেকে বাজেট বরাদ্দ পান । বাজেট পাওয়ার পর পরই সংশ্লিষ্ট ঠিকাদাররা ফাইতং বাজার থেকে লামা বাজার পর্যন্ত সড়কটিতে দ্রুতগতিতে নির্মাণ চালিয়ে যাচ্ছে । এমনকি দৃষ্টিনন্দন ৪টি ব্রীজ সহ বহু কালভার্ট , ড্রেইন ও গাইড ওয়াল নির্মাণের কাজ ইতিমধ্যে শেষ হওয়ার পথে । তবে বদর ঠিলা নামক স্থানটি বহু উঁচু হওয়ায় সেখানে ঢালাই কাজে বিঘ্নিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কর্মরত শ্রমিকেরা । ২১ সেপ্টেম্বর শনিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় , ইট ভাটার ভারি যানবাহন চলাচলের কারনে নির্মাণাধীন এ দৃষ্টিনন্দন সড়কটি ভেঙ্গে খান খান হয়ে যাচ্ছে । সর্বপরি এলাকাবাসির লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায় , এ সড়কটির নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার সাথে সাথে লামা উপজেলা সদরের গুরুত্ব অনেকটা বেড়ে যাবে এবং বৃদ্বি পাবে পর্যটকদের পদচারণা । এছাড়া বিভিন্ন হাতে সরকারী রাজস্বও বৃদ্বি পাবে বলে মনে করেন স্থানীয়রা ।

আরও পড়ুন

কাপাসিয়ায় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির জাতীয় শোক দিবস পালন

এ‌শিয়া কা‌পে ও‌পেন কর‌‌বেন সা‌কিব-মুশ‌ফিক

ফটিকছড়িতে চুরির অপবাদ দিয়ে যুবলীগ নেতার মারধর, অপমানে ফার্নিচার মিস্ত্রির আত্মহত্যা

নাগরপুরে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের আয়োজনে শোক দিবস পালিত

কাপাসিয়ায় যথাযোগ্য মর্যাদায় ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পালিত

নাগরপুর উপজেলা আ.লীগের শোক দিবস পালন

ফতুল্লার কাশীপুরে জাতীয় শোকদিবস পালিত

জাতীয় শোক দিবস ও ভারতের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ

লোহাগাড়ায় পুকুরে ভেসে ওঠলো দুই শিশুর মৃতদেহ, এলাকায় শোকের ছায়া

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ধলঘাটাতে বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

মহাত্মা অশ্বিনী কুমার ছাত্রাবাস থেকে শোক র‍্যালি অনুষ্ঠিত।

জাতীয় শোক দিবস নিয়ে মণিপুরি মুসলিম শিক্ষার্থীদের ভাবনা