কমলগঞ্জে ধলাই নদীর বাঁধ ভাঙ্গনে পানিবন্দি পাঁচ শতাধিক পরিবার

received_1309121339254035.jpeg

নির্মল এস পলাশ, কমলগঞ্জ প্রতিনিধি :
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের ধলাই নদীর প্রতিরক্ষা বাঁধের পৌর এলাকার রামপাশায় ভাঙন দেখা দিয়েছে।টানা বর্ষণে ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে শুক্রবার ১২জুলাই দিবাগত রাত ১টার দিকে ভাঙ্গন দেখা দেয়।এতে প্রবল স্রোতে বানের পানি লোকালয়ে প্রবেশ করায় বাঁধ সংলগ্ন পাঁচটি বাড়ী ভেঙ্গে যায়।বাড়ীর লোকজন পাশ্ববর্তী লোকজনের সহায়তায় নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যায়। কমলগঞ্জ পৌর এলাকার রামপাশাসহ আশপাশের বেশ কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে গ্রামের রাস্তাঘাট, ফসলি জমি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় প্রতিষ্টান পানিতে নিমজ্জিত হওয়াসহ ভেসে গেছে পুকুর ও ফিসারীর কয়েক লাখ মাছ। এতে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন প্রায় পাঁচ শতাধিক পরিবারের কয়েক হাজার মানুষ।ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শন করেছেন মৌলভীবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রনেন্দ্র শংকর চক্রবর্তী, কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃআশেকুল হক,কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আরিফুর রহমান, কাউন্সিলর রাসেল মতলিব তরফদার,আনোয়ার হোসেন সহ উপজেলা কৃষি বিভাগ ও স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা বৃন্দ এবং কমলগঞ্জ ফায়ারসার্ভিসের একটি দল।উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জানান প্রাথমিক ভাবে প্রায় একশত পঁচিশ হেক্টর ফসলি জমি ও আমনের বিচতলা ক্ষতিগ্রস্থ্য হয়েছে বলে জানান। কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে আলাপকালে সিলেট ভয়েসকে জানান বন্যায় কবলিত মানুষের জন্য শুকনা খাবার বিতরণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্থ্য বাড়িঘর নির্মাণে সহায়তা করা হবে, পানি নেমে গেলে দ্রুততম সময়ে ভাঙ্গন এলাকা মেরামত করা হবে।মৌলভীবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রনেন্দ্র শংকর চক্রবর্তী জানান ইতিমধ্যে ঝুকিপূর্ন্য বাঁধসহ ভাঙ্গনকৃত বাঁধ মেরামতে ঠিকাদার নিয়োগ করা হয়েছে, পানি নেমে গেলেই দ্রুত কাজ শুরু হবে।

Top