যশোরে ঝিকরগাছায় ডাকাতির ঘটনায় চারজন আটক ও অস্ত্র উদ্ধার

IMG_20190712_141305.jpg

শিমুল সরকার,ঝিকরগাছা প্রতিনিধি :

ঝিকরগাছায় একই সাথে ৫ টি বাড়ি, সিরিজ ডাকাতির ২৪ ঘন্টার মধ্যে চার সন্দেহভাজন ডাকাতকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় লুট হওয়া মালামাল ও ডাকাতদের ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।
আটককৃত ডাকাতরা হলো, ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরের মানিকদিহি গ্রামের লাল্টু, নাটোর সদর উপজেলার কেশন চক বোদনা গ্রামের আবু বক্কার, যশোর সদর উপজেলার ভাতুড়িয়া গ্রামের মহসিন এবং কেশবপুর উপজেলার বড়েঙ্গা গ্রামের শাহিন।
বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় পুলিশ সুপার অফিসে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার মঈনুল হক। তিনি বলেন, মঙ্গলবার গভীর রাতে ঝিকরগাছার রাজাপুর, চাপাতলা ও বর্ণী গ্রামের ৫টি বাড়িতে সিরিজ ডাকাতি হয়।
৭-৮ জনের ডাকাত দল ঝিকরগাছার রাজাপুরের টিপু গাজী, চাঁপাতলা গ্রামের মিজানুর রহমান বাদশা, বর্ণি গ্রামের সখিনা বেগম, শরিফুল ও আতিয়ারের বাড়িতে ডাকাতি করে। এসব বাড়ি থেকে কয়েক লাখ নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার ও আসবাবপত্র লুট হয়।

পুলিশ অভিযান চালিয়ে চার ডাকাতকে আটক করেছে। এসময় তাদের কাছ থেকে লুট হওয়া নগদ ১৯ হাজার ৩৯০ টাকা, এক জোড়া হাতের বালা, ডাকাতদের ব্যবহৃত তিনটি মোবাইল ও তিনটি দা উদ্ধার করা হয়েছে।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ডাকাতরা ডাকাতির কথা স্বীকার করেছেন বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানে হয়। এ ঘটনায় ঝিকরগাছা থানায় মামলা করা হয়েছে। ডাকাতির সাথে জড়িত অন্যদের আটকের জন্য অভিযান চলছে।
সংবাদ সম্মেলনে সহকারি পুলিশ সুপার সালাহ উদ্দিন সিকদারসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Top