সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, মৌলভীবাজার উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

received_448358335984328.jpeg

রিপন মিয়া, সদর প্রতিনিধি মৌলভীবাজার।
প্রথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষাতে প্রশ্নফাঁসের প্রতিবাদ ও পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে আজকে “বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, মৌলভীবাজার জেলার উদ্যোগে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। জুবায়েল আহমদ শুভ এর সঞ্চালনায় উক্ত মানবন্ধনে মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের ছাত্রী ” বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ মৌলভীবাজার জেলা শাখার স্বমন্বয়ক তানজিয়া শিশির বলেন “প্রশ্নফাঁস একটি জাতির জন্য অভিশাপ। সরকার ও প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলতে চাই, যেকোনো মূল্যেই হউক প্রশ্নফাঁসের এই ধারা বন্ধ করুন এবং বিগত ২৪ মে ও ৩১ মে অনুষ্ঠিত পরীক্ষা বাতিল করে পুণরায় স্বচ্ছতার মাধ্যমে নিয়োগ নিশ্চিত করুন। শিক্ষাই জাতির মেরুদণ্ড সেখানে প্রশ্ন ফাঁস করে আমাদের মেরুদণ্ডকে ধংস করা হচ্ছে।
পরীক্ষার্থী পিংকি বেগম বলেন “দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে প্রশ্নফাঁসের সাথে জড়িত কিছু চক্রান্তকারীকে ধরার জন্য প্রশাসনকে সাধুবাদ জানাই, কিন্তু আমরা বিস্মিত হচ্ছি, প্রশ্নফাঁসের এতো স্পষ্ট প্রমাণ থাকা সত্বেও প্রশাসন পরীক্ষা বাতিলের কোন পদক্ষেপ তো নিচ্ছেই না বরং ফলাফল ঘোষণা করার নোটিস দিয়েছেন। আমরা মনে করি, এই পরীক্ষা তার স্বচ্ছতা হারিয়েছে তাই বাতিল করা আবশ্যক।”
পিকলু বলেন “লাখ লাখ টাকার প্রশ্নফাঁস করে যারা শিক্ষক হতে চায়, তারা কখনো শিক্ষার্থীদের নৈতিকতা শেখাতে পারেনা, কারণ ওরা নিজেরাই পথভ্রষ্ট। এই জাতির ভবিষ্যৎ প্রজন্ম ধংস করার এই এক অশুভ পাঁয়তারা। তাই অবিলম্বে বিগত দুই ধাপের পরীক্ষা বাতিল করতে হবে এবং পরবর্তী দুই ধাপের পরীক্ষা শতভাগ স্বচ্ছতার মাধ্যমে নিতে হবে।” মৌলভীবাজার পলিটেকনিকেল কলেজের ছাত্র সজিব খান, অবিলম্বে প্রশ্নফাঁসের বিতর্কিত পরীক্ষা বাতিল করে পুনরায় পরীক্ষা নেয়ার দাবি জানান। অনুষ্ঠানে আর ও বক্তব্য রাখেন পরীক্ষার্থী গৌতম,লিটন, স্বপন সহ আর ও অনেকে।
সমাপনী বক্তব্যে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সদসসদস্য মোহাম্মদ রিপন উপস্থিত সাংবাদিক, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, শিক্ষার্থী ও সাধারণ জনগণকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ বাংলাদেশে কোন অন্যায় অনিয়ম চলতে দিবেনা।
ছাত্র সমাজকে নিয়ে প্রতিহত করবে।।

Top