শেরপুর ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় সিএনজি পরিবহন কর্ম বিরতিতে জনগণের দুর্ভোগ চরম মাত্রা নিয়েছে।

received_632180977256499.jpeg

রিপন মিয়া, সদর প্রতিনিধি মৌলভীবাজার।

মৌলভীবাজার সদর থানাধীন মৌলভীবাজার জেলা অটো টেম্পু, বেবী, মিশুক,সিএনজি সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিষ্ট্রেশন নং চট্ট-২৩৫৯ অন্তর্ভুক্ত শেরপুরে সিএনজি শ্রমিকদের ১২ ঘন্টার কর্মবিরতি। কর্মবিরতিতে স্থবির হয়ে পড়েছে শেরপুর ও আশেপাশের এলাকা।

বৃহস্পতিবার (২০জুন) সকাল থেকে থেকেই এই কর্মবিরতি শুরু হয়। শেরপুর ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় সিএনজি পরিবহন কর্ম বিরতিতে জনগণের দুর্ভোগ চরম মাত্রা নিয়েছে।

জানা গেছে, গত ১৬ জুন যাত্রী উঠানো নিয়ে সরকার বাজার সিএনজি শ্রমিকদের সাথে ঝগড়া সৃষ্টি হয় এতে শেরপুর সিএনজি শ্রমিক জুয়েল মিয়া (২৫), আকিব হোসেন (২২), মসুদ মিয়া (২৪), স্বপন (২০) আহত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় এই কর্মবিরতি পালন করছে শেরপুর সিএনজি শ্রমিকরা।

শেরপুর আঞ্চলিক শাখার সিএনজি শ্রমিক সাধারণ সম্পাদক মোঃ রিপন মিয়া বলেন, “সরকার বাজার সিএনজি শ্রমিকদের সাথে ঝগড়ার বিষয়টি শেষ না হওয়ায় আমরা মৌলভীবাজার সড়কে সিএনজি চলাচল করতে পারছিনা, আমরা চেয়েছি সরকার বাজার সিএনজি শ্রমিকদের সাথে বিষয়টি নিষ্পত্তি করার জন্য, কিন্তু তা সম্ভব হয়ে উঠছেনা।

উক্ত লক্ষ্যে আমরা শেরপুর সিএনজি শ্রমিক সম্মিলিতভাবে কর্ম বিরতীতে আছি। এতে যদি কোনো কার্যকরী পদক্ষেপ না হয় আমরা পরবর্তীতে কঠোর কর্মসূচী পালন করবো।

মোবাইল ফোনে সরকার বাজার সিএনজি শ্রমিক সভাপতি নয়নের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন আমরা সমাধানের জন্য চেষ্টা করতেছি, মৌলভীবাজার জেলা শ্রমীক ইউনিয়নের সভাপতি এ বিষয়ে অবগত আছেন।

এদিকে পরিবহন শ্রমিকদিনের কর্ম বিরতীর ফলে বিভিন্ন গন্তব্যের উদ্দেশ্যে বের হয়েও পৌঁছাতে পারেননি শত শত মানুষ। শেরপুর থেকে পাশ্ববর্তী উপজেলায় অফিস যাত্রীরাও কর্মস্থলে যেতে পারেননি। একইভাবে পাশ্ববর্তী উপজেলাগুলো থেকে শেরপুর বাজার সিএনজি না পেয়ে দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে শত শত মানুষকে।

Top