মা, প্রধানমন্ত্রী আপনার কাছে সাহায্যের চিঠি পাঠিয়েছি। জানিনা গেছে কিনা!!

received_392101934738328.jpeg

ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি :

প্রধানমন্ত্রী নেত্রী মমতাময়ী মা আমাকে বাঁচান। আম্মাজান আপনি একটু দয়া করুন আমার উপরে। আমার পরিবারের আয় রোজ গারের উৎস আমি মা। আপনি চাইলেই সব কিছু করতে পারেন মা। আমারে বাঁচার সুযোগ করে দিন।

ঠিক এভাবেই কান্নাজণিত কন্ঠে বারে বারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিজের মা বলে কথাগুলো বলে যাচ্ছেন শরীরের ভাল্ব নষ্ট হয়ে যাওয়া পীরগঞ্জ উপজেলার কর্ণই হাটপাড়া এলাকার মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে নূর ইসলাম (৩০)।

মুখে শুধু কথা একটাই আপনি চাইলেই (প্রধানমন্ত্রী) মা আমাকে বাঁচাতে পারবেন। আপনার একটি সাহায্য আমাকে ও আমার পরিবারকে বাঁচিয়ে দিবে মা। আপনার কাছে সাহায্যের চিঠি পাঠিয়েছি মা। যানিনা গেছে কিনা।

যানা যায়, দীর্ঘদিন ধরেই শরীরের দুটি ভাল্বের মধ্যে একটি নষ্ট হয়ে যাওয়ায় কষ্ট করে চলছেন নূর ইসলাম। টাকা যোগাড়ের জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভিক্ষা চাচ্ছেন তার পরিবাটি।

একটা সময় কাজ করতেন এলাকার নাপিতের দোকানে নূর ইসলাম। এরপরে সেটি ছেড়ে দিয়ে মানুষের বাগান দেখা শুনার কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়ে সে। কষ্ট করে হলেও তিন ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে চালচ্ছে পরিবারটি। এভাবেই কষ্ট নিয়ে খুড়িয়ে খুড়িয়ে চলে জীবনযাপন। অভাবের সংসারে যেন আরো বড় বিপদ আসলো তাদের সামনে।

বছর খানের আগে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পরে নূর ইসলাম। এলাকাবাসীর কাছে আর্থিক সাহায্যের প্রায় ৩০ হাজার টাকা নিয়ে যান দিনাজপুর মেডিকেল কলেজে। সমস্যার কোন সঠিক চিকিৎসা না পেয়ে চলে যান সিরাজগঞ্জের খাজা ইউনুস মেডিকেল কলেজে। কিছুদিন সেখানে চিকিৎসা নেয়ার পরেই ফুরিয়ে যায় এলাকাবাসীর কাছে সাহায্য নেয়া সেই টাকা। চলে আসেন নিজ বাসায়। অসহায় হয়ে পড়ে নূর। অবশেষে কোন উপায় না পেয়ে এলাকার এক হোমিও চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নেন। কিন্তু বড় সমস্যা তো আর ছোট ওষুধ দিয়ে হয়না।

আস্তে আস্তে শরীরের অবস্থার অবনতি। কি করবেন দিশেহারা যেন তার পরিবারটি। এরপরে আবারো এলাকার সকলেই তার পাশে এসে দাঁড়ায়। তাকে পাঠানো হয় ঢাকা হৃদরোগ জাতীয় ইনস্টিটিউটে।

অবশেষে ধরা পরে মূল সমস্যা। হয়েছে তার ভাল্বের সমস্যা। ডাক্তারের মতে দুটি ভাল্বের মধ্যে একটি হয়েছে একেবারেই অকেজো। আর একটি প্রায় অকেজোর পথে। এখন পর্যন্ত সকলের কাছে সাহায্য নিয়ে চিকিৎসায় জন্য প্রায় আড়াই লাখের মতো খরচ করেছেন নূর ইসলাম। কিন্তু উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন অনেক অর্থ। কোথায় পাবেন এতো টাকা.? চিন্তায় পরিবারটি। প্রয়োজন প্রায় ৬ লাখের মতো টাকা।

স্থানীয় বাসিন্দা রাজু ও জালাল উদ্দিন জানান, সকলেই মিলে নূর ইসলামের জন্য চেষ্টা করে টাকা তুলে তার সাময়িক চিকিৎসা করেছি। কিন্তু তার ভাল্বের অবস্থা ভালোনা। অনেক টাকার প্রয়োজন। সমাজের বিত্তবানরা যদি সকলে তার পাশে এসে দাঁড়ায় তাহলে হয়তো তাকে বাঁচানো যাবে।

অসুস্থ নূর নূর ইসলামের স্ত্রী পারুল জানান, অনেকদিন ধরেই অসুস্থ হয়ে আছে আমার স্বামী। এলাকার সকলের কাছে হাত জোড় করে টাকা তুলে এতোদিন চিকিৎসা করেছি। কিন্তু এখন উন্নত চিকিৎসার জন্য অনেক টাকার প্রয়োজন। কি করবো আমরা ? একবেলা খাইতো আরেক বেলা সঠিক করে খাইতে পারিনা। কি করে এতো টাকা জোগাড় করেবো ? তাই দেশের অভিভাবক মমতাময়ী নেত্রী, প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্য চাই আমাদের দিকে একটু তাকান। সেই সাথে সকলের কাছে অনুরোধ আপনারা আমার স্বামীটারে বাঁচান।

Top