বেনাপোল স্থল বন্দর পরিদর্শন করলেন ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাস

received_2308981189344088.jpeg

মোঃ রাশেল ইসলাম,বেনাপোল(যশোর)প্রতিনিধি:

যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতের সাথে আমদানি-রফতানি বাণিজ্যিক কার্যক্রম ও পাসপোর্ট যাত্রী যাতায়াতে সুবিধি,অসুবিধা সরেজমিনে দেখতে পরিদর্শন করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাস ।

শনিবার(০৮জুন) বিকাল ৩ টায় তিনি সফর সঙ্গী নিয়ে বেনাপোল ও ভারতের পেট্রাপোল বন্দর এলাকা পরিদর্শন করেন।

এদিকে হাই কমিশনার রীভা গাঙ্গুলী দাস বেনাপোল চেকপোষ্ট এসে পৌছালে সেখানে তাকে আনুষ্ঠানিক অভ্যর্থনা জানান, বিভিন্ন দপ্তরের প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও ব্যবসায়িক নেতৃবিন্দরা। এসময় হাইকমিশনারের বেনাপোল বন্দর পরিদর্শন উপলক্ষ্যে প্রশাসনিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, খুলনা বিভাগীয় সহকারী হাইকমিশনার রাজেস কুমার,বেনাপোল কাস্টমসের সহকারী কমিশনার উত্তম চাকমা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল, ভারত -বাংলাদেশ ল্যান্ডপোর্ট ইমপোর্ট,এক্সপোর্টের সাব কমিটির চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান, বেনাপোল পোর্টথানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আবু সালে মাসুদ করিম ও ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আবুল বাশার প্রমুখ।

জানা যায়, দেশের স্থলপথে ভারতের সাথে বাংলাদেশের যে বাণিজ্য হয় তার ৭০ শতাংশ হয় বেনাপোল বন্দর দিয়ে। কিন্তু সুষ্ট ভাবে বাণিজ্য পরিচালনায় এখানে নানান সমস্যা বিদ্যমান। এছাড়া সুনিদিষ্ট অভিযোগ ছাড়া চেকপোষ্ট প্যছেঞ্জার টার্মিনালে বিজিবি কর্তৃক পাসপোর্ট যাত্রীদের ব্যাগ তল্লাশীর বিষয়টিও নিয়ে আলোচনায় উঠে আসে। এসব সমস্যা ও
বাণিজ্যিক সম্ভবনা সরেজমিনে পরিদর্শন করতে ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাস বেনাপোল বন্দর পরিদর্শনে আসেন।

দুই দেশের ব্যবসায়ীরা মনে করছেন, ভারতীয় হাই কমিশনারের পেট্রাপোল-বেনাপোল বন্দর পরিদর্শনে চলমান বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে যেমন গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখবে তেমনি আমদানি-রফতানি বাণিজ্যে জটিলতা ও ভারত ভ্রমনে পাসপোর্ট যাত্রীদের দূর্ভাগ লাঘব হবে বলে জানান তারা।

Top