রাজশাহীতে আদিবাসী নারীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের

.jpg

শামীম পারভেজ – রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি :

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার গুনি গ্রামের এক আদিবাসী নারীকে মাঠ হতে গরু বেঁধে ফেরার পথে জোর পূর্বক ধর্ষনের চেষ্টার অভিযোগে মোঃ ফরিদ (২৮) এর বিরুদ্ধে গোদাগাড়ী মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অভিযুক্ত ফরিদ ধাতমা গ্রামের ফুয়াদ আলীর ছেলে। বুধবার ৫ জুন রাতে ধর্ষনের চেষ্টায় শিকার ওই নারী নিজে বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, জনৈক ওই আদিবাসী নারী ৫ জুন বুধবার পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের দিন সকাল আনুমানিক সোয়া ১০ টার দিকে তার একটি পালিত গরু রাজাপাড়া গ্রামস্থ মঞ্জিখোর মাঠে ঘাষ খাওয়ানোর জন্য গরুকে মাঠে বাঁধিয়া বাড়ী ফেরার পথে ফরিদ আলী (২৮) গুনিগ্রাম রাজাপাড়া গ্রামস্থ লগেন সরেণের পুকুরের পূর্বপাড়ে নিম গাছের নিছে একা পেয়ে জাপটিয়া ধরে হাতমুখ এবং গলা চেপে ধরে জোর পূর্বক ইচ্ছার বিরুদ্ধে পাষবিক নির্যাতনের চেষ্টা চালায়। এই সময় ওই নারী নিজেকে বাঁচানোর জন্য চিৎকার দিলে ওই নারীর স্বামীসহ আশেপাশের লোকজন উদ্ধার করে ও ধর্ষনের চেষ্টাকারী লম্পট কে আটকিয়া ওই গ্রামের সুন্দরীর মুদি খানার দোকানে নিয়ে আসিলে ফরিদের কিছু লোক জোর পূর্বক ছিনিয়ে নেয় বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন।

এই ঘটনার শিকার আদিবাসী নারী নিজেই গোদাগাড়ী মডেল থানায় বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

এই বিষয়ে গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, ঘটনাটি সুষ্ট তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান

Top