ঈদের আনন্দে বারবিকিউ পার্টি

20190605_200744.jpg

————–
ঈদ মানেই আনন্দ উৎসবে ছুটাছুটি। এই বছরের ঈদের আনন্দ কিছুটা ক্ষুন্ন হয়েছে সকাল থেকে বৃষ্টির কারণে কিন্তু ঈদ তো আর প্রতিদিন আসেনা বছরে দুটি ঈদ পালিত হয় মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে তার মধ্যে ঈদুল ফিতর একটি আজ বুধবার ৫ই জুন আর এই বারবিকিউ নিয়ে আমরা বন্ধু মহল মাহে রমজান মাসে ইফতার পার্টিতে সকল সিদ্ধান্ত নিয়ে সকলকে বলে দেওয়া হয়েছিল যে ঈদের দিন বিকেলে এই বারবিকিউ পার্টি করা হবে তাই ঈদের দিন বিকেলে সকলকে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছিল।আজ ঈদ তাইতো আমরা সবাই কথামতো উপস্থিত হয়ে মেতে উঠলাম ঈদ উল্লাসে।আমরা বন্ধুরা বিগত কয়েক বছর ধরে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে থাকি সত্যিই অনেক মজা করি সকলেই।আর এই আনন্দ যেনো জীবনের হারিয়ে যাওয়া দিনগুলো মনে করিয়ে দেয় একটু শান্তির সস্তি পাওয়া যায়।

ঈদ বলে কথা আর এই ঈদকে আরো একটু বেশি আনন্দের যুক্ত হলে কোনো কথা থাকেনা আর একটু মজা করবোনা তা কি করে হয়!ঈদের দিন সকাল থেকে রিমঝিম বৃষ্টি যার জন্য একটু ঠান্ডা ভাবছিল আমরা বন্ধুরা ঠিক ঘরোয়া পরিবেশের মতোই বারবিকিউ পার্টির আয়োজন করলাম এর মজাই আলাদা। অনেকেই মনে করেন, বারবিকিউ করা অনেক ঝামেলার কাজ। কিন্তু রেসিপি জানা থাকলে বাড়ির ছাদে বা খোলা কোনো জায়গায় আগুন জালিয়ে যে কেউ একটু চেষ্টা করলেই পারবে।তবে আমাদের বেশি কষ্ট হয়নি কেননা আমাদের বন্ধুদের মধ্যে একজন ছিলেন যে কিনা খুবই পারদর্শী এই বারবিকিউ সম্মন্ধে যার নাম না বললেই নয় মোঃ মাসুদ ও ই সবসময় এই বারবিকিউর দায়িত্ব পালন করে।তাই আমাদের তেমন কোনো ঝামেলা হয়নি । যে কেউ পারবেন এই বারবিকিউ করতে আপনিও একটু চেষ্টা করে দেখেন দেখবেন আপনি সহজে তৈরি করে ফেলতে পারেন চমৎকার সুস্বাদু বারবিকিউ।

আমাদের সকলের বসবাস ঢাকার তেজগাঁও আর এই তেজগাঁয় আছে সযকারী হ‌র্কাস মার্কেট যার নাম হল(কলনী বাজার) সাধারণত আমাদের সকলেরই আড্ডার একটি সুন্দর পরিবেশ।আমরা যারা আজ এই ঈদ বারবিকিউ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলাম তারা সকলেই ৯৫”ব‍্যাচের।তাদের মধ্যে যারা উপস্থিত ছিলেন জাকির হোসেন(ডালিম),সাইফুল ইসলাম, মোঃ মিন্টু, সোহেল, মাসুদ, আমির, আল-আমিন, আবুবকর সিদ্দিক, মোঃ লিটন, মতিউর রহমান,মোঃ মিঠু ও আমি।এছাড়াও আরো অনেকেই উপস্থিত থেকে ঈদের আনন্দ যেনো আরো বাড়িয়ে দিয়েছিল।এই দিনটিকে সত‍্যিই স্বরণীয় হয়ে থাকবে।জীবন সুন্দর আর সৌন্দর্য বাড়াতে মাঝে মধ্যে একটু আনন্দ যেনো আরো অনেক বেশি খুশির জোয়ার নিয়ে আসে সকলের জীবনে।একদিন হয়তোবা আমরা থাকবোনা তখন অনেকেই বলবেন আমাদের ৯৫”ব‍্যাচের কথা।আমরা আমাদের বন্ধুত্ব সবসময় এভাবেই ধরে রাখবো যত ঝড়-ঝাপটা আসুকনা কেনো।

ক্ষনিকের এই পৃথিবীতে কেউ থাকবোনা বেঁ চিরকাল কিন্তু থেকে যাবে আজকের এই ঈদ বারবিকিউর দিনের কথা,আমরা সকলেই বিভিন্ন গল্প ও হাসিখুশীতে কাটিয়ে দিয়েছি ক্ষানিক সময় ঈদ বারবিকিউ অনুষ্ঠানে।আমরা যেনো সবসময় এই আনন্দ উপভোগ করতে পারি এই দোয়া কামনা করছি সকল বন্ধুরা মহান আল্লাহর কাছে।

লেখক সাংবাদিক

Top