কচ্ছপিয়াতে বনের জমিতে মনের মতো ইটের দালান!!

IMG_20190523_193342.jpg

মোঃসাইদুজ্জামান সাঈদ,রামুঃ
কক্সবাজারের রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নে বন বিভাগের জমি দখলে নিয়ে তৈরি করা হচ্ছে মনের মতো অবৈধ দালান ঘর। এর দেখাদেখি স্থানীয় অনেকে আরও বনভূমি দখলের প্রস্তুতি নিচ্ছে। উজাড় করছে বনের গাছপালা। পাশাপাশি জীববৈচিত্র্যও ধ্বংস হচ্ছে। পরিবেশের এই বিপন্নতা নিয়ে বন বিভাগ একেবারেই উদাসীন।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে- কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বাঁকখালী রেঞ্জের আওতাধিন কচ্ছপিয়ার হাইস্কুল পাড়া পার্শ্ববর্তী এলাকায় নাপিত পাড়া বনভূমির দখলকৃত বিশাল জায়গায় ছয়কক্ষ বিশিষ্ট দালান ঘর নির্মাণের কাজ চলছে।

জানতে চাইলে দালান ঘর নির্মাণ কাজের শ্রমিক মমতাজ বলেন- স্থানীয় প্রবাসী মনহরি নাথ এই দালান ঘর নির্মাণ করছেন। গত এক মাস ধরে বাড়ি নির্মাণের কাজ চলছে। মমতাজ নতুন তিতার পাড়া এলাকার ছেলে। স্থানীয়দের অভিযোগ- গ্রামের কথিপয় প্রভাবশালীদের মদদে অবৈধ এই ঘর নির্মাণ হচ্ছে।

এ ব্যাপারে মমতাজ বলেন, বনভূমির জায়গা সেটা ঠিক আছে। তবে স্থানীয় মিয়ার (বনবিট কর্মকর্তা) সঙ্গে কথা বলেই ঘরটি তৈরী করা হচ্ছে।

তবে বিষয়টি অস্বীকার করেছেন স্থানীয় মৌলভীকাটা বনবিট কর্মকর্তা শেখ মিজানুর রহমান। তিনি বলেন- বনভূমির বিষয়ে কোন ছাড় নেই। এই ঘর উচ্ছেদে অভিযান চলবে।

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বাকখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা আতা এলাহী নিউজ ভিশন৭১ কে বলেন-‘রামুতে বনভূমিতে তৈরী করা দালান ঘর উচ্ছেদে অভিযান শুরু হয়েছে। গত দুই মাস আগে কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে বনবিভাগের জমি উদ্ধারে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। বাকি ঘরগুলোও পর্যায়ক্রমে উচ্ছেদ করা হবে।

Top