ছাতকে ইন্টারনেট বিভ্রাটে অতিষ্ট গ্রাহক

IMG_20190518_234553.jpg

হাসান আহমেদ,
ছাতক প্রতিনিধি::

ছাতকে নেট-ইন্টারনেট বিভ্রাটে মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেট গ্রাহকদের ভোগান্তি চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। সম্প্রতি এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকসহ বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে গ্রামীণফোন, রবি, বাংলালিংকসহ বিভিন্ন মোবাইল অপারেটরগুলোর গ্রাহকদের নানা বিষদগার করতে দেখা গেছে। ভুক্তভোগী গ্রাহকদের অভিযোগ, বিভিন্ন অপারেটরগুলোর দেয়া শক্তিশালী নেটওয়ার্ক প্রতিশ্রুতি কার্যত প্রতারণা ছাড়া কিছুই নয়। এখানে দীর্ঘ দিন ধরে প্রায় সবগুলো কোম্পানীর নেটওয়ার্ক ব্যবহারে মারাত্মক ভোগান্তি পোহাচ্ছেন তারা। এ অভিযোগ শুধু ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের নয়, আছে কলের ক্ষেত্রেও। কারো সাথে মোবাইল ফোনের আলাপ শুরু হলে তা কোন মতেই নির্বিঘেœ শেষ করা সম্ভব হয় না। কলের শেষ মুহুর্ত পর্যন্ত পৌঁছতে একাধিকবার দেখা দেয় কলড্রপ। কোনো কোনো এলাকায় মোবাইল ফোনের সিম সচলের সিগন্যাল পয়েন্টের মাত্রা দুর্বল নেটওয়ার্কের কারনে কখনো ২/১টা দেখা গেলেও কখনো টানা ৪/৫ মিনিট থাকে শুন্য। উচ্চ গতিতে নেটওয়ার্ক সুবিধা প্রদানের জন্যে কোম্পানীগুলো বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণায় যেভাবে শক্তিশালী মোবাইল নেটওয়ার্ক সেবা নিশ্চিত করনে গ্রাহকদের আশান্বিত করে আসছে বাস্তবে তা গুড়েবালি। ইন্টারনেট ব্যবহারকালে গ্রাহকরা যেমন দ্রুত গতির নেটওয়ার্ক সুবিধা পাচ্ছেন না তেমনি ফোনালাপের ক্ষেত্রে দেখা দিচ্ছে মাত্রাতিরিক্ত নেটওয়ার্ক বিভ্রাট।
১৩টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত এ উপজেলার অধিকাংশ এলাকার ভুক্তভোগী গ্রাহকরা জানান, নিজ নিজ কোম্পানির উন্নত সেবা প্রদানে প্রচার মাধ্যমে মোবাইল অপারেটরগুলোর প্রতিযোগীতামুলক বিজ্ঞপ্তি দেখে মানুষ আশান্বিত হয়ে প্রতিদিন ফোনালাপ, ইন্টারনেটভিত্তিক কাজ-কর্মসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রচুর পরিমাণ টাকা ব্যয় করে থাকে। উন্নত সুযোগ-সুবিধার বাস্তব চিত্র তার উল্টো। টু’জি থেকে ত্রি’জি হয়ে অপারেটর গুলো এখন লোভ দেখিয়ে ফোর’জি বা চতুর্থ প্রজন্মের ইন্টারনেট ব্যবহারে আকর্ষিত করছে। কিন্তু অনেক এলাকায় এখনো টু’জি সেবাই পৌঁছাতে পারেনি। সেবার নামে কার্যত তারা মানুষের পকেটের অর্থ লুটপাটের ধান্ধাবাজিই করছে বলে জানান ভুক্তভোগীরা।##

Top