রাস্তা পাকাকরণ কাজ বন্ধ, চরম ভোগান্তিতে জনসাধারণ

received_851110101913092.jpeg

মোঃ রাফিউল ইসলাম (রাব্বি), স্টাফ রিপোর্টার:

রংপুর সদর উপজেলা পাগলাপীর হরিদেবপুর ইউনিয়নের ৯ নং ওর্য়াডের বেলবাড়ী যাওয়া দুই কিলোমিটার সড়কটি পাকা করণের লক্ষে সড়কে বক্স কেটে বালু ফেলে টিকাদার নির্মাণধীন কাজ বন্ধ করে দেওয়ায় সড়কে চলাচলরত শিক্ষার্থী পথচারী সহ গ্রামবাসীদের পোহাতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগ।
বিশেষ করে বর্তমান সড়কটির খাল খন্দক বেহাল ভগ্ন দশার কারণে যানবাহন চলাচল করাতো দুরের কথা পথচারীদের চলাচল দুসাধ্য হয়ে পড়ায় সেচ নির্ভর ইরি বুরো ধান কাটা মাড়াই নিয়ে বেলবাড়ী গ্রামের কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পড়ছেন।
জানা গেছে চলতি বছরে গত ফেব্রয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে রংপুর দিনাজপুর ঢাকা হাইওয়ে সড়ক হতে বেলবাড়ী যাওয়া সড়কের আতিয়ার তাল্লিমের বাড়ীর সামন দিয়ে পূর্ব কিশামত গ্রামের আওয়ামীলীগ নেতা জাহাঙ্গীরের বাড়ীর সামন দিয়ে আফজালের মুদির দোকান সিটির মোড় পর্যন্ত দুই কিলোমিটার সড়কটি স্থানীয় সরকারের (এল,জি,ডি, ই) এর অধীনে পাকা করণ কাজ উদ্ধোধন করা হয়।
অত্র ইউপি চেয়ারম্যান মো. ইকবাল হোসেন সড়কটির আনুষ্ঠানিকথা উদ্ধোধন করেন। মেসার্স নুর এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সড়কটির নির্মাণ কাজের দায়িত্ব পান। সড়কটির পাকা করণের লক্ষে ঠিকাদার দুই কিলেমিটার জুড়ে বক্স কেটে বালু ফেলেন।
এরপর হটাৎ করে ঠিকাদার সড়কের পাকা করণ কাজ বন্ধ করে দিলে প্রায় সাড়ে ৩ মাস ধরে গ্রামের মানুষ জন চলাচল করতে গিয়ে ছোট বড় দুঘটনা অপ্রাতিকার ঘটনা সহ চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ মো. মকবুল হোসেন,সহ সভাপতি মো. আতাউর রহমান ঢাঙ্গা, বেলবাড়ী জামে মসজিদের সভাপতি মোশারফ হোসেন, সম্পাদক তাজুল ইসলাম সহ গ্রামের সচেতন মহল ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন ঠিকাদারের খাম খেয়ালী ও উদাসীনতার কারনে আমরা গ্রামের মানুষজন ঠিক মত হাট বাজার যেতে পারছিনা।
সড়কে বক্স কেটে বালু ফেলানোর কারনে যানবাহন চলাচলতো দূরের কথা পায়ে হাটা পথচারীদের এখন চলাচল দুস্বার্ধ হয়ে পড়ছে। এখন গ্রামজুড়ে চলছে বোর ধান কাটামারির মৌসুম কিন্তু সড়কের যে অবস্থা তাতে করে ধান কাটা মাড়াই করে ঘরে তোলা খুব কঠিন হয়ে পড়ছে। আমরা গ্রামবাসীরা সড়কের পাকাকরন জরুরী ভিত্তিতে করানোর জন্য ঠিকাদারের সাথে বার বার যোগাযোগ করলেও এই হবে এই হবে বলে তিনি আশ্বাস দেন।
তার আশ্বাসে প্রায় সাড়ে তিন মাস অতিবাহিত হলেও আজও পর্যন্ত বেলবাড়ী যাওয়া দুই কি, মি. সড়কটির পাকাকরনে কোন কুল কিনারা খুজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাই সড়কটির এ অবস্থার পরিত্রাণ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য অত্র হরিদেবপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন সহ উপজেলা ও জেলা প্রশাসনের উর্ধ্বতন মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন গ্রামবাসী।

Top