চান্দগাঁও-এ শতবর্ষী পুকুর ভরাট বন্ধে বাস্তব পদক্ষেপ নেই প্রশাসনের : উচ্চ আদালতের নির্দেশ মানছে না সংশ্লিষ্টরা

100-b-old-pokur-600x337.jpg

আদালত অবমাননার পদক্ষেপ নিচ্ছেন রিটকারী :

মানবাধিকার প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ

চট্টগ্রামে শতবর্ষী পুকুর ভরাটের প্রতিকার চেয়ে মানবাধিকার সংগঠনের রিটের পরিপ্রেক্ষিতে মহামান্য উচ্চ আদালতের প্রদত্ত রায় কার্যকর করছে না প্রশাসন । উল্টো দিনাতিপাত মাটি ভরাট করে নির্মিত হচ্ছে মার্কেট । ফলে উচ্চ আদালতের আদেশের অবমাননা রোধের পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছেন বাদী সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী মানবাধিকার নেতা এডভোকেট এলিনা খান । চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে গত ১৩/০৩/১৯ ইং (স্মারক নং ০৫.৪২.১৫০০.৩০২.১০.০৪৬.২০১৬-৫৪৪) রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর মু. মাহমুদ উল্লাহ্‌ মারুফ ডেপুটি কালেক্টর মহানগর সহকারী কমিশনার (ভূমি), চান্দগাঁও সার্কেলকে, রিটের পরিপ্রেক্ষিতে বিধিমতে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ দেন । ইতিমধ্যে পুকুর ভরাটের কথা স্বীকার করে পরিবেশ অধিদপ্তের পরিচালক মোঃ আজাদুর রহমান মল্লিক গত ০৬/০৩/১৯ (স্মারক নং ২২.০২.০০০০.০৫১.০০.২৫(৩য়).১৯-১১৫) ইং তারিখে পরিবেশ অধিদপ্তর ঢাকা বরাবরে একখানা রিপোর্ট প্রেরণ করেন । পরিবেশ অধিদপ্তর জরিমানা করেই ক্ষান্ত । উল্লেখ্য যে, চট্টগ্রামের চান্দগাঁও থানাধীন পাঠানিয়া গোদা এলাকার বায়তুন নূর জামে মসজিদের শতবর্ষী পুকুর ভরাট পূর্বক মার্কেট বানানোর ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে প্রতিকার চেয়ে মহামান্য উচ্চাদালতে জনস্বার্থে মামলা দায়ের করেছেন মানবাধিকার সংগঠন বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশন- বিএইচআরএফ এর প্রধান নির্বাহী মানবাধিকার নেত্রী এডভোকেট এলিনা খান । জনস্বার্থে মহামান্য সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের মাননীয় বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ এবং বিচারপতি রাজিক আল জলিল এর আদালতে উক্ত রিট দায়ের করলে আদালত বিবাদীগণের বিরুদ্ধে রুল নিশি জারী করতঃ ৪নং বিবাদী ডি সি (চট্টগ্রাম)কে এ ব্যাপারে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন । উক্ত রিটে সচিব (পরিবেশ অধিদপ্তর), মেয়র (চসিক), চেয়ারম্যান (সিডিএ)ও জেলা প্রশাসক চট্টগ্রামকে বিবাদী করা হয় । উল্লেখ্য বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত “চান্দগাঁও এ শতবর্ষী পুকুর ভরাট” শিরোনামে প্রকাশিত সচিত্র সংবাদটি উক্ত মানবাধিকার সংগঠনের দৃষ্টিতে আসলে সংগঠনের অর্গানাইজিং ডাইরেক্টর এবং চট্টগ্রাম চ্যাপ্টার সভাপতি এডভোকেট এ.এম. জিয়া হাবীব আহ্‌সান পরিবেশ অধিদপ্তর সহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে লিগ্যাল ডিমান্ড জাস্টিস নোটিশ প্রদান করেন । এতেও সংশ্লিষ্টরা ঐতিহ্যবাহী পুকুরটি ভরাট তথা পুরাকীর্তির ধ্বংসযজ্ঞ অব্যাহত রাখলে সংস্থার সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী ও মানবাধিকার নেত্রী এডভোকেট এলিনা খান বাদী হয়ে জনস্বার্থে উক্ত রিট মামলা দায়ের করেন । স্থানীয় জনগণ ও মুসল্লিরা এ বিষয়ে ফায়ার বিগ্রেড, সিডিএ ও পরিবেশ অধিদপ্তর অভিযোগ দায়ের করে আসছিল । বাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেছিলেন সুপ্রীম কোর্টের এডভোকেট রেজিনা মাহমুদ (লুচি) (০১৮১৯-২৮৮০৪৪) ।

Top