ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তিনজন সহ-সভাপতিসহ যশোর জেলার ৪ ছাত্রনেতা

IMG_20190514_185633.jpg

আব্দুর রহিম রানা, যশোর ;

আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে স্থান পেয়েছেন যশোর জেলার ৪ ছাত্রনেতা। পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (১৩ মে) ছাত্র সংগঠনটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানি স্বাক্ষরিত ৩০১ জন বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটির তালিকা হতে এই তথ্য জানা যায়।

যশোরের যে ৪ ছাত্রনেতা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে জায়গা করে নিয়েছেন তারা হলে্নঃ সহ-সভাপতি পদে সোহানী হাসান তিথি, মুনমুন নাহার বৈশাখী, মাহমুদুল হাসান এবং ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে লেখক ভট্টাচার্য্য।

সোহানী হাসান তিথি: যশোর সদর উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা এ.এইচ.এম তরিকুল্লাহ এর মেয়ে সোহানী হাসান তিথি ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সহ-সভাপতি পদ পেয়েছেন। তিনি ইডেন কলেজে পড়াশোনা করছেন এবং ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক উপ-সম্পাদক পদে ছিলেন।

এদিকে বিবাহিত হয়েও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে স্থান পেয়েছেন সোহানী হাসান তিথি এমন সংবাদ বিভিন্ন গণমাধ্যমে দেখা যাচ্ছে। তার এই পদ পাওয়া নিয়ে বিভিন্ন গুঞ্জন ও বির্তক শোনা যাচ্ছে। তবে এবিষয়ে তিনি এখনো পর্যন্ত গণমাধ্যমে বা তার ফেসবুক আইডিতে কিছু জানাননি।

মুনমুন নাহার বৈশাখী: যশোরের মেয়ে ইডেন কলেজের ছাত্রী ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তিনিও সহ-সভাপতি পদে রয়েছেন। তিনি ইডেন মহিলা কলেজে শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক পদে ছিলেন।

সহ-সভাপতি পদ পাওয়ার পর মুনমুন নাহার বৈশাখী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছেন “জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিজ হাতে গড়া ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের একজন সাধারণ কর্মী হিসেবে পরিচয় দিতেই আমি সবচেয়ে বেশী স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের আদর্শিক নেত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নে কাজ করতে আমার মনে হয় না কোন পদ-পদবীর প্রয়োজন রয়েছে। সবকিছু ছাপিয়ে আপনারা আমার প্রতি বিশ্বাস রেখেছেন। আমি কৃতজ্ঞতা জানাই বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সংগ্রামী সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ভাই এবং বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী ভাইয়ের প্রতি। আপনারা বাংলাদেশ ছাত্রলীগে আমার নতুন পরিচয় এনে দিয়েছেন। বিশেষ কৃতজ্ঞতা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী ভাইয়ের প্রতি। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।

মাহমুদুল হাসান:
যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলার সন্তান মাহমুদুল হাসান পান্নাও ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সহ-সভাপতি পদে রয়েছেন। যশোর জেলা থেকে ৩ জন রয়েছেন এই কমিটির সহ-সভাপতি পদে।

লেখক ভট্টাচার্য্যঃ যশোরের মনিরামপুর উপজেলার কৃতি সন্তান লেখক ভট্টাচার্য্য ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

লেখক ভট্টাচার্য্য একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর নির্বাচনকালীন সময়ে খুলনা বিভাগীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয়ক ছিলেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ছিলেন ছিলেন লেখক ভট্টাচার্য্য। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের ১ম যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় লেখক ভট্টাচার্য্যকে যশোর জেলার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ তাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

এব্যাপারে জানতে চাইলে লেখক ভট্টাচার্য্য আমাদের প্রতিবেদক আব্দুর রহিম রানাকে বলেন, ‘আমি প্রথমে শোভন ভাই ও রাব্বানী ভাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই আমাকে এমন একটি বড় দায়িত্ব দেওয়ার জন্য। আসলে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আমার উপর যে দায়িত্ব অর্পণ করেছেন তা আমি আমার সর্বোচ্চ দিয়ে পালন করার চেষ্টা করবো। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা তৈরিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশানুযায়ী কাজ করে যাবো।’

উল্লেখ্য, যশোর-৫ (মনিরামপুর) আসনের সাংসদ স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য এর ভাতিজা লেখক ভট্টাচার্য্য।

Top