সয়ে গেছে

54437257_792011401191890_1964968377101320192_n.jpg

“সয়ে গেছে।” আমাদের এই “সয়ে গেছে” শব্দটি চিত্তে, মাথার বৃত্তে, হৃদয়ের তীর্থে এমন ভাবে গেঁথে গেছে যে “সয়ে গেছে” শব্দটিও এখন আমাদের সয়ে গেছে।

এই সয়ে যাওয়া ধারণা দমিয়ে রেখেছে আমাদের মনুষ্যত্বকে, আমাদের ভেতরের মানুষ বোধটাকে। প্রতিদিন হত্যা,ধর্ষণ দেখে আমাদের চোখ, কান, আত্মা সয়ে গেছে। আমরা হারিয়ে ফেলেছি আমাদের প্রতিবাদের সেই বজ্র কন্ঠ, ভুলে গেছি বিচার পাওয়ার অধীকার। অক্ষমতার ভয়ে আজ আমাদের সবকিছু সয়ে গেছে। সয়ে যাওয়া ভাবনা আমাদের মানুষ থেকে রোবট বানিয়েছে। একদিন এই সয়ে যাওয়া ভাবনা আপনার আমার ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে। সেদিন খুন, ধর্ষণ, অন্যায়ের শিকার হব আমি-আপনি আর তা অন্যদের কাছে সয়ে যাবে। তারা আপনার আমার হত্যার বিচার চাইবে না, যেমন আজ আপনার আমার সয়ে গেছে। দেশটাকে সুন্দর করে সাজাতে হলে এই সয়ে যাওয়া বোধটাকে দূরে ঢেলে দিয়ে আমাদের সত্য, ন্যায় ও নিষ্ঠার সাথে এগোতে হবে, হতে হবে প্রতিবাদী। আমাদের যাত্রা হোক অন্যায়কে তাড়ানোর যাত্রা। এই পথে যাত্রা শুরু করুন আজই, প্রতিবাদ করুন প্রতিরোধ গড়ুন। নিজের জায়গা থেকে সর্বোচ্চটা দিয়ে এগিয়ে আসুন।

আমি আপনিই পারি বিচারহীনতার অপসংস্কৃতির বুকে ছুরিকাঘাত করতে। আপনি আমি আওয়াজ তুললে অপরাধীদের আঁতুড়ঘর কেঁপে উঠবে। লাল সবুজের পতাকা গড়ে উঠুক কারো রক্তের লালে নয়, গোলাপের লালে।

অগ্নি কল্লোল
শিক্ষার্থী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

Top