উদার মানবিকতাঃ মামার চিকিৎসার জন্য খাবার বিক্রি করছেন ঢাবি শিক্ষার্থী

20190420_172419.jpg

সিনজাত রহমান সানি,ঢাবিঃ

রিকশাচালক মামার চিকিৎসা সেবার খরচ জোগাড়ে ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) স্টল বসিয়ে বাঙালি ঐতিহ্যবাহী খাবার বিক্রি করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফারজানা।

ফারজানা ঢাবির শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইআর) চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী।

তিনি স্টলে পায়েস, ভাত, মুরগি, মাছ-বেগুন ভাজা, বিভিন্ন ধরনের ভর্তাসহ বাঙালি ঐতিহ্যবাহী খাবারের পসরা নিয়ে বসেছেন। স্টলের পাশেই খাবারের তালিকা টানানো রয়েছে।

শনিবার (২০ এপ্রিল) দুপুরে ফারজানা বলেন, আমার মামার হার্টের তিনটা রিং পরানো দরকার। তার একটা অপারেশন হয়েছে। সেখানে আমাদের ৪০ হাজার টাকা বাকি আছে। যা সোমবারের (২২ এপ্রিল) মধ্যে পরিশোধ করতে হবে। আবার ছয় মাস পরে আমার মামাকে চিকিৎসা করাতে হবে। তখন তার জন্য দেড়লাখ টাকার মতো দরকার। কিন্তু আমার মামা তার সবকিছু বিক্রি করে চিকিৎসা করাচ্ছেন। তিনি কারো কাছে সাহায্য চাননি। আমিও মামার চিকিৎসার জন্য টিএসসিতে কিছুদিন খাবার বিক্রি করবো।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) প্রথমদিনের মতো টিএসসির মেইন গেটে খাবার বিক্রি করেন তিনি। শনিবার বিকেল তিনটার পর থেকেও খাবার বিক্রি করতে দেখা গেছে ফারজানাকে।

এদিকে ফারাজানার এমন উদ্যোগের প্রশংসা করছেন সবাই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তাকে সহযোগিতা করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছেন। তাকে সহযোগিতা করতে চাইলে ০১৭৩৯৮৯৩৫০৪ (বিকাশ) এবং ০১৫২১৩১৯১০৯৫ (রকেট) এ নম্বর দু’টিতে সাহায্য পাঠানোর অনুরোধ করেছেন ফারাজানার বান্ধবীরা।

হার্টে ব্লক ধরা পড়লে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে ভর্তি হন ফারজানার মামা আবু মুসা। সেখানে তার অপারেশন হয়েছে। বর্তমানে তিনি হাসপাতালের ডি-ব্লকে চিকিৎসাধীন।

Top