জগন্নাথপুরে শ্বাসরোধে কাজের লোকের মৃত্যু

download-8.jpg

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে শ্বাসরোধে রাফছান মিয়া (১২) নামের এক কাজের লোকের মৃত্যু হয়েছে। সে জগন্নাথপুর পৌর এলাকার লুদরপুর গ্রামের হারুন মিয়ার ছেলে। সেই সাথে রাকিব আলী (১৫) নামের আরেক কাজের লোক গুরুতর আহত হয়েছে। সে একই গ্রামের ফারুক আলীর ছেলে। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সরেজমিনে স্থানীয়রা জানান, লুদরপুর গ্রামের মনু মেম্বারের বাড়িতে কাজ করতো রাফছান ও রাকিব। প্রতিদিনের মতো ১৫ এপ্রিল সোমবার রাতে তারা বাড়ির একটি ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে। তবে ১৬ এপ্রিল মঙ্গলবার তারা ঘুম থেকে জেগে না উঠায় বাড়ির লোকজনের মধ্যে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে দরজা ভেঙে তাদেরকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাফছানকে মৃত্যু ঘোষণা করেন এবং রাকিবকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়।
এ ব্যাপারে স্থানীয়রা বলেন, তারা যে ঘরে ঘুমে ছিল, সে ঘরে রাতে জেনারেটর চলছিল। সেই সাথে ঘরের দরজা জানালা বন্ধ ছিল। তারা ধারণা করে বলেন, জেনাটরের ধোয়ায় শ্বাসরোধ হয়ে তারা অচেতন হয়েছিল। যে কারণে এ ঘটনা ঘটেছে। জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মরত চিকিৎসক ডাঃ শায়খুল ইসলাম বলেন, কোন প্রকার ধোয়ার কারণে শ^াসরোধ হয়ে ১ জনের মৃত্যু ও আরেকজন আহত হয়েছে।
জগন্নাথপুর থানার ওসি মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী বলেন, দরজা-জানালা বন্ধ থাকা ঘরে জেনারেটরের ধোয়ায় শ্বাসরোধ হয়ে রাফছানের মৃত্যু হয়েছে। তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ হাসাপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এরপরও আর কোন রহস্য আছে কিনা এ বিষয়ে নিবিড় তদন্ত চলছে। #

Top