জামালপুরে চিকিৎসকদের অবহেলায় সাংবাদিক মৃত্যু ॥ সহকারি পরিচালক অব্যাহতি

jamalpur-2.jpg

রোকনুজ্জামান সবুজ জামালপুর ঃ
চিকিৎসকদের অবহেলায় এনটিভির স্টাফ করসপনডেন্ট জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক শফিক জামানের মৃত্যুর ঘটনায় সহকারি পরিচালক ডা. সিরাজুল ইসলামকে অব্যাহতি দিয়েছে। সিভিল সার্জন ডা: গৌতম রায় চলতি দায়িত্ব পালন করবেন। রবিবার সন্ধ্যায় জামালপুর সার্কিট হাউজে স্বাস্থ্য বিভাগ, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও সাংবাদিকদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ডা: মুরাদ হাসান এ নির্দেশ দেন।
এ ঘটনায় স্বাস্থ্য বিভাগের ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিচালক ডা: মো. আবুল কাসেমকে প্রধান করে ৪ সদস্যের এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। আগামী ২১ এপ্রিলের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী। এসময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, সাংবাদিক শফিক জামানের চিকিৎসায় সুস্পষ্টভাবে অবহেলার প্রাথমিক ভাবে পাওয়া গেছে।
এছাড়াও জামালপুর জেলারেল হাসপাতালকে অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান চলার ঘোষণা দেন। মতবিনিময় সভায় স্থানীয় সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোজাফ্ফর হোসেন, জেলা আ’লীগ সভাপতি বাকী বিল্লাহ, জেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ চৌধুরী, পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন, ৩৫বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল নজরুল ইসলাম, সিভিল সার্জন ডা: গৌতম রায় স্বাস্থ্য বিভাগের সকল কর্মকর্তা ও পৌর মেয়র র্মিজা সাখাওয়াতুল আলম মনি, জামালপুরে কর্মরত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীর।
উল্লেখ্য, ১২ এপ্রিল সাংবাদিক নেতা শফিক জামান লেবু (৫৫) হঠাৎ অসুস্থ্য হলে তাকে দ্রুত জামালপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা পর্যন্ত দেয়া হয়নি। বরং সাংবাদিক পরিচয় জেনেই ময়মনসিংহ হাসপাতালে রেফার্ড করে। পরে ময়মনসিংহ নেয়ার পথে তিনি মারা যান। সাংবাদিক-রাজনীতিক ও সূধিমহলের প্রশ্ন দেশের এত উন্নয়ন হয়েছে। জামালপুরে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালও স্থাপন করা হয়েছে। অনেক প্রাইভেট ক্লিনিকও আছে। অথচ জেলা পর্যায়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নাপেয়ে লেবুর মতো কতো মানুষের মৃত্যু ঘটছে। এমন উন্নয়নের স্বার্থকতা আছে কি?

Top