হেবাকৃত সম্পত্তি প্রতারণার মাধ্যমে ব্যাংকে বন্ধক,৩০ লাখ টাকা আত্মসাৎ,ব্যবসায়ী গ্রেফতার

IMG_20190408_175318.jpg

আদালত প্রতিবেদক ;

রূপালী ব্যাংক ও.আর.নিজাম রোড কর্পোরেট শাখায় ভূয়া বন্ধক দিয়ে ৩০ লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে গ্রেফতারকৃত এক ব্যবসায়ীকে হাজতে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিজ্ঞ আদালত । চট্টগ্রামের বিজ্ঞ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত, আমলী-০৩ এর বিচারক জনাব শফিউদ্দিন একটি মামলায় গ্রেফতারকৃত আসামী ইলিয়াছ আহমেদের বিরুদ্ধে ব্যাংকের পক্ষে আনিত শোন এরেস্ট-এর আবেদন মঞ্জুর করেছেন । গত ২০/০২/১৯ ইং তারিখে রুপালী ব্যাংক লিঃ এর পক্ষে বাদী হয়ে সিনিয়র অফিসার মোহাম্মদ নুর হোসেন ১৩০/১৯ ইং মামলাটি দায়ের করেন । উল্লেখ্য, আসামী ইলিয়াছ আহমেদ ডবলমুরিং থানাধীন সিদ্দিক আহমেদ কন্ট্রাকটরের পুত্র । অভিযোগে প্রকাশ ১নং আসামী মোঃ ওসমান গনি ‘মেসার্স ওসমান এন্ড ব্রাদার্স’ নামীয় মালিকানাধীন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের মালিক হন এবং ২নং আসামী ইলিয়াছ আহমেদ উক্ত ৩০ লক্ষ টাকা ঋণের জামিনদার ও বন্ধকদাতা হন । উভয় আসামী পরস্পর যোগসাজশে ভূয়া বন্ধক প্রদান পূর্বক উক্ত টাকা আত্মসাৎ করায় রূপালী ব্যাংক লিঃ উক্ত অর্থ আদায়ে ব্যর্থ হয়ে বিগত ২০/০২/২০১৯ ইং তারিখে দন্ডবিধির ৪০৬/৪২০/৪৬৮ ধারায় বিজ্ঞ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন ।
উক্ত তারিখে আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালত ওয়ারেন্ট ইস্যু করেন ।
উল্লেখ্য যে, ২নং আসামী ইলিয়াছ আহমেদ ১০ লক্ষ টাকা চেক প্রতারণার অভিযোগে পরিচালিত দায়রা মামলা নং ২৪৮৭/১৬, সি আর ১১৮৫/২০১৬ (কোতোয়ালী) মামলায় গ্রেফতার হয়ে হাজতে গেলে, তাকে সি.আর ১৩০/১৯ (পাঁচলাইশ) নং মামলায় রূপালী ব্যাংক লিঃ শোন এরেস্টের আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত আবেদন মঞ্জুর করতঃ সি.ডব্লিউ ইস্যু করা হয় । বাদী ব্যাংক উক্ত আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে সর্বমোট পাওনা ৪৮,২০,৩৪৪/- (আটচল্লিশ লক্ষ বিশ হাজার তিনশত চুয়াল্লিশ) টাকার জন্য জারী মামলা ২২৮/১৬ দায়ের করা হয় ।
বাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন- সিনিয়র এডভোকেট সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, এডভোকেট মোঃ শাহজাহান বেপারী, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ ।

Top