নাইক্ষ্যংছড়ি গহীন পাহাড়ে যৌথ অভিযানে ‘বন্দুকযুদ্ধ’ শীর্ষ পাহাড়ী সন্ত্রাসী নিহত

IMG_20190403_174653.jpg

————————-
শামীম ইকবাল চৌধুরী,
নাইক্ষ্যংছড়ি(বান্দরবান)থেকে::

নাইক্ষ্যংছড়িতে সেনা – র‌্যাবের যৌথ অভিযান চালিয়ে কথিত বন্দুকযুদ্ধে শীর্ষ সন্ত্রাসী জ্ঞানন শঙ্কর চাকমা (৩৮) নিহত হয়েছে। এতে দলব্ধ থাকা সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

নাইক্ষ্যংছড়ির দৌছড়ি ইউনিয়নের ডুলুঝিরি আগার গহীন পাহাড়ের জঙ্গলে বুধবার (৩ এপ্রিল) সকালে এ ঘটনা ঘটে।

তবে ঘটনাস্থলের পাশাপাশি এলাকার জনসাধারণেরা জানান, বুধবার দিবাগত রাত আনুমানিক ৩টার দিকে বেশ কিছু পাল্টা-পাল্টি গুলির শব্দ শুনা গেছে বলে জানান।
আর এদিকে খুজঁ নিতে গিয়ে একটি সূত্রে জানান, নিহত জ্ঞান শঙ্কর চাকমা রাঙ্গামাটির র্শীষ অস্ত্রধারী পেশাদার সন্ত্রাসী। সে প্রতিনিয়ত চাঁদাবাজি,অপহরণ করে আসচ্ছিল। তার নামে বেশ কয়েকটি মামলাও রয়েছে বিভিন্ন থানায়।

র‍্যাব-৭ সিও লেঃ কর্ণেল মিফতা উদ্দীন আহাম্মেদ জানান, দীর্ঘদিন ধরে পার্বত্য জেলার বিভিন্ন এলাকার সাধারণ জনগণ র‍্যাবের কাছে অভিযোগ করে আসছিল যে, বিভিন্ন পাহাড়ী এলাকায় চাঁদাবাজি,অপহরণ,অস্ত্রব্যবসাসহ বিভিন্ন অপকর্মের সাথে জড়িতের অত্যাচারে তারা অতিষ্ঠ। এর ভিত্তিতে বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় র‍্যাব-৭ এর সিও লেঃ কর্ণেল মিফতাহুল করিম এবং সেনা ২৩ বীর এর লেঃ আহনাদ এর একটি যৌথ বাহিনী আভিযানিক দল অপারেশন (টহল) কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

অন্য এক সূত্রে জানান, অপারেশন টহলদলটি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দৌছড়ি ইউনিয়নের তুলাতুলি এলাকার ডুলুঝিরি নামক পাহাড়ের গহীন জঙ্গলে কাছাকাছি পৌঁছলে ৮-১০জন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী যৌথবাহিনীকে লক্ষ করে গুলি ছুঁড়লে এর জবাবে যৌথবাহিনীও পাল্টা গুলি চালিয়ে র্শীষ সন্ত্রাসী জ্ঞান শঙ্কর চাকমার গায়ে গুলি বিদ্ধ হয়ে লোটিয়ে পড়লে সাথে থাকা অন্যান্য সন্ত্রাসীরা এক পর্যায়ে পালিয়ে যায়।
পরে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে দেখা যায় একজন সন্ত্রাসী গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে আছে। এসময় ঘটনা স্থলের আশে-পাশে তল্লাশি চালিয়ে ৭টি এস,এম,জি আগ্নেয় অস্ত্র, নিহত ব্যাক্তির এন,আই,ডি পরিচয় পত্র,নগদ ৪ লাখ ৩৬ হাজার টাকা,১১টি মেগ্যাজিন, ৪৩৭টি বিভিন্ন ধরনের তাজা গুলি জব্ধ করা হয়।

নিহত সন্ত্রাসীকে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় নিয়ে এসে ছুরুতাল সম্পন্ন করে পার্শ্ববতী কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
আর এদিকে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় ওই সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে একটি মামলার কার্যক্রম চলছে বলে থানার সূত্রে জানান।
——————

Top