স্মৃতির ডাইরি–ফিরোজ খান

20190319_193955.jpg

—————————
যেদিন এই আমি আর থাকব না বেঁচে,নিবোনা নিশ্বাস, দেখবোনা দুচোখে সুন্দর পৃথিবী, তবুও ভুলে যেতে পারবোনা ভালোবাসা, এ যে হ্নদয়ের গভীর থেকে তিল তিল করে জমানো ভালোবাসা যে ভালোবাসা মহান আল্লাহর কাছ থেকে আসে প্রত‍্যেকের জীবনে।আমি তোমাকে এতোটা এতোটাই বেশি ভালোবেসেছি যা কখনোই ভুলে যেতে পারবোনা, তাইতো তোমাকে ঘিরে লিখতে চেষ্টা করছি ভালোবাসার গল্প স্মৃতির ডাইরিতে।

যে স্মৃতির কথামালা লিখেছি প্রতিটি রাতে রাতজাগা পাখি হয়ে ফুলের সৌরভ নিয়ে।বাগানে আজও কতো রঙের ফুল ফুটে আছে, পাখিরা আজও মধুর কন্ঠে গান গাইছে প্রকৃতির নিয়মে দিন শেষে রাত আসছে আর ঠিক তেমনি ভাবে তোমার প্রতি আমার ভালোবাসা আরো শক্ত হচ্ছে আমি যে কিছুতেই তোমাকে ভুলতে পারছিনা প্রেয়সী,তুমি যে এতোটা পাষানী হবে তা আমার চোখে কখনও ধরা পড়েনি, তাইতো এককভাবে আমি তোমাকে ভালোবেসে যাচ্ছি আমার মতো করে।তুমি কি পারবে এভাবে আমাকে ভুলে থাকতে সে কথা কিছুতেই বিশ্বাস হচ্ছে না আমার।আমার ভালোবাসা গড়ে ওঠবে স্মৃতির আঙিনায়-বাঁধভাঙা বিরহী বিষাদের অজস্র কান্নার ধারা বয়ে।

দেহান্ত হলে থাববে না আর প্রাণের অস্তিত্ব
আমি না থাকলেও থাকবে আমার কৃতিত্ব ও তোমার প্রতি আমার অসীম ভালোবাসা
যুগ যুগ ধরে লেখা থাকবে স্মৃতির পাতায় স্মৃতির ডাইরিতে।তুমি যে আমার প্রিয়ভাষিণী স্মৃিত তনয়া,আমি বলতে চেয়েছি তোমায় বার্তা লিখে তুমি শুধু আমার আমার লেখা-লেখীর সাহিত্য রচনায়,হৃদয়ে লালন করা স্মৃতির ভালোবাসায় খুঁজে বেড়াই তোমাকে তিলেতিলে গড়ে তোলা আমার ভালোবাসার খাতায় লিখে যাই জীবনের কথামালা।আমি কতটা নিঃস্বার্থভাবে ভালোবেসেছি তোমায় তুমি সেই ভালোবাসার কথা কিছুতেই বুঝতে চাওনি আমি প্রতি মুহূর্তেই বোঝাতে চেয়েছি তোমায় কতটুকু ভালোবাসি আমি।কিন্তু আজ শুধুই আফসোস তুমি আজও বোঝনি আমায় ও আমার ভালোবাসার কষ্ট।

হে মোর প্রিয় মানসী যখন তোমার এই আমি আর থাকব না ভালোবাসার অজুহাতে তোমায় কাছে ডাকব না খুনসুটি আর দুষ্টুমিতে তোমায় বিরক্ত করব না হয়তোবা সেদিন তুমি সামান্য হলেও বুঝতে পারবে কতটুকু ভালোবেসেছিলাম তোমাকে।তখন তোমার এই আমিকে কোথাও খুজে পাবে না!প্রিয়ভাষিণী তখন তোমার কিছুই করার থাকবে না শতভাগ চিৎকার করে ও তুমি আমাকে খুঁজে পাবেনা পৃথিবীতে।যেদিন তুমি বুঝবে কতটা নিঃস্বার্থভাবে ভালোবেসেছি আমি তোমায়।সেদিন তোমার সমস্ত ভালোবাসা দেওয়ার জন্য খুঁজবে আমাকে।হয়তো’বা কোথাও খুঁজে পাবে না ? কিন্তু তুমি তোমার প্রেমের পবিত্র সুধায় আমায় কাছে চাইবে আমার দেখা পেলে তুমি প্রেমআদুরে বুকে জড়িয়ে ধরবে যেথায় সেথায় তখন তুমি শুধুই আমায় খুঁজবে!আমি জানি,তখন তোমার কিছুই করার থাকবে না হয়তো তখন তুমি অশ্রুভরা আঁখিজলে শুধুই কাঁদবে,আর বারংবার তোমার আশেপাশে আমায় খুঁজবে??অথচ তুমি কোথাও আমাকে খুঁজে পাবে না?কিন্তু আমার জীবনের সমস্ত স্মৃিতগুলোই তো-
তুমি খুঁজে পাবে শুধুই যে স্মৃতির ডাইরিতে লেখা থাকবে দুজনের প্রেমকাহিনী।

তবে আমি যেনো কিছু স্বপ্ন হারিয়ে ফেলেছি পাহাড়ি ঝর্ণার স্বচ্ছ জলে,কিছু স্বপ্ন ভাসিয়ে দিয়েছি সমুদ্রের ঐ লোনা জলে তবুও কিছু স্বপ্ন যেনো অন্ধ হয়ে ঘুরছে নীরব রাতের নিথর নিস্তব্ধ আকাশে;এ অন্ধ-রঙিন স্বপ্নতে ছিল না কোন ঈর্ষা,মান-অভিমান,তবে কেন ছুঁতে পেলে না আমার স্বপ্ন রুপছায়ার মুগ্ধতায়।
আজ শুধু কিছু স্মৃতি রয়েছে তোমাকে ঘিরে সেই তোমার দেওয়া পুরনো ডাইরিতে আবার কিছু এলোমেলো স্মৃতি রয়েছে রুপছায়ার উদ্যানে আর ফুটপাতে,কিছু স্মৃতি রয়েছে ক্যামেরার ফ্রেমে বন্দি করা ফোকাসে-জানি না কত কাল রবে লেখা বেদনার স্মৃতিগুলো স্মৃতির ডাইরিতে?

(নবীন লেখক ও সাংবাদিক ফিরোজ খান)

Top