মিঠাপুকুরে উপজেলা নির্বাচন শান্তিপুর্ণ করতে ১৪৪ ধারা জারি

received_2446202588737316.jpeg

মোঃ রাফিউল ইসলাম রাব্বি,
মিঠাপুকুর, রংপুর প্রতিনিধি–

তৃতীয় ধাপে আগামী রবিবার (২৪ মার্চ) অনুষ্ঠিত হবে রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন। এ নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কায় মিঠাপুকুরে সব ধরনের সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে প্রশাসন। ১৪৪ ধারা জরির আদেশ জানিয়ে বুধবার সকাল থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে এলাকায় মাইকিং করা হয়।
মিঠাপুকুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুন অর রশিদ জানান, বুধবার সকাল থেকে আগামী ২৪ মার্চ ভোটগ্রহণ শেষ না হওয়া পর্যন্ত মিঠাপুকুরের দমদমা ব্রিজ থেকে শঠিবাড়ির ভাবনা ফিলিং স্টেশন পর্যন্ত ২২ কিলোমিটার মহাসড়কে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এবং নির্বাচন পর্যন্ত প্রতি দিন উপজেলা পরিষদও শটিবাড়ী বাজার এলাকায় সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত এই ১৪৪ ধারার আদেশ বলবত থাকবে। এ আদেশ রংপুর জেলা প্রশাসকের পরামর্শে জারি করা হয়েছে। মিঠাপুকুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাফর আলী বিশ্বাস জানান, সোমবার রাতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী মেসবাহুর রহমান মঞ্জুর এক সমর্থকের ওষুধের দোকানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জাকির হোসেনকে হুকুমের আসামি করে কয়েকজনের নামে থানায় অভিযোগ দেন ওই সমর্থক। মামলা রেকর্ডভুক্ত ও আসামিদের গ্রেফতারের দাবিতে মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত মিঠাপুকুর বাসস্ট্যান্ডের সামনে রংপুর-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন মঞ্জুর সমর্থকরা। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। প্রসঙ্গত, বুধবার সকালে উপজেলা সদরের শাপলা মার্কেট চত্বরে নৌকা ও আনারস প্রার্থীর পক্ষে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। প্রশাসনের পক্ষ থেকে উক্ত এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি থাকায় সভা অনুষ্ঠিত হয়নি। পরে নৌকা মার্কার প্রার্থী জাকির হোসেনের নেতৃত্বে কর্মী-সমর্থকরা মিঠাপুকুর কলেজে মাঠে জড়ো হয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। এতে হাজারো নেতা, কর্মী, সমর্থক অংশ নেন। এ সময় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাকির হোসেন সরকার, যুবলীগ নেতা কামরুজ্জামান কামরু, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী নিরঞ্জন মহন্ত, মহিলা লীগ নেত্রী ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী শামীমা আখতার জেসমিন, আওয়ামী লীগ নেতা জুলফিকার আলী সামদানী, এশারদ আলী সরকার দুলু, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গেলাম আযম মিলন প্রমুখ।

Top