ছাতকে হিজড়াদের চাঁদাবাজি দিন রাত বেড়েই চলেছে

images-2-1.jpg

ছাতক প্রতিনিধি ::

সুনামগঞ্জের ছাতকে হিজড়াদের চাঁদাবাজির কবলে পড়ছে ছাতক উপজেলার হাট বাজারসহ বর যাত্রীর গাড়ি। সিলেট সুনামগঞ্জ সরকে কমিউনিটি সেন্টার সামনে পৌছামাত্র হিজড়া দল বরের গাড়ির সামনে দাড়িয়ে প্রথমে সাহায্য নামে চাঁদা (টাকা) দাবি করে।

জানাগেছে, ছাকত সিলেট রোডে বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কিংবা বাসাবাড়িতে হিজড়াদের সাহায্যের নামে চাঁদাবাজি দিন রাত বেড়েই চলছে। ভদ্রসমাজের লোকজন ইজ্জতের ভয়ে তাদেরকে চাঁদা দিয়ে যাচ্ছেন।

বিভিন্ন কমিউনিটি সেন্টারে বিয়ে অনুষ্ঠানের দিন সেন্টারের পাশেই হিজড়ারা বর সহ যাত্রীদের গাড়ির অপেক্ষা করে। বর সহ যাত্রীদের গাড়ি সেন্টারের পাশে আসার সাথে সাথেই বরের গাড়ির সামনে গিয়ে টাকা দাবি করে। এসময় বরের সাথে থাকা যাত্রী ও বরের আত্মিয়স্বজনেরা হিজড়াদের নির্ধারিত দাবি করা চাঁদা শেষ পর্যন্ত ইজ্জতের ভয়ে দিতে বাধ্য হয়। হিজড়াদের চাঁদা দাবির এমন ঘটনা ছাতকে প্রতিটি বিয়ে অনুষ্ঠানে ঘটছে আর ভদ্র সমাজের লোকেরা ইজ্জতের ভয়ে হিজড়াদের দাবিকৃত নির্ধারিত চাঁদা দিয়ে তাদের কাছথেকে যেতে হয়, তাদের দাবীকৃত চাঁদা আদায় না হলে বরের গাড়ি ছাড়া কোন অবস্থায় সম্ভব নয় কারন হিজড়ারা বরের গাড়ির সামানে আপত্তিকর অবস্থায় বেরিকেট দিয়ে দাড়ায়। ইজ্জতের ভয়ে ভদ্র সমাজের লোকজন হিজড়াদের সাথে অতিরিক্ত কথা বলেন না। কেউ আবার হিজড়াদের দাবিকৃত টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলেই চলে অশ্লীল গালাগালসহ দুর্ব্যবহার। হিজড়াদের এই বেপরোয়া চাঁদাবাজি যেন দিন রাতড় বেড়েই চলছে। তাদের সংঘবদ্ধ চাঁদাবাজির কাছে ছাতক উপজেলবাসি জিম্মি হয়ে পড়েছেন।

পুরুষ হিজড়া মেয়ে সেজে মানুষের বিয়ে অনুষ্ঠানে ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রকাশ্যে চাঁদাবাজি করছে। এসব হিজড়াদের অত্যাচারে মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন। হিজড়াদের চাঁদাবাজিতে ভূক্তভোগী জনসাধারণ এদের বিরোদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছেন।

Top