আদমদীঘিতে মায়ের মৃত্যুর তিন ঘন্টার ব্যবধানে শোকে ছেলে মুক্তিযোদ্ধাও চলে গেলেন

download-9.jpg

মোঃ মোমিন খান, আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ
বৃদ্ধা মা ফাতেমা বেওয়া (৯৫) এর মৃত্যু খবরে শোক সইতে না পেরে মাত্র তিন ঘন্টার ব্যবধানে ছেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল রাজ্জাক খলিফা (৬৫)ও মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন। (ইন্নালিল্লাহে…….রাজিউন)।

ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার দিবাগত রাতে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার কুন্দগ্রাম ইউনিয়নের বশিকোড়া গ্রামে। মাতা পুত্রের আকষ্মিক মৃত্যুতে মুক্তিযোদ্ধাসহ এলাকায় শোকের ছাড়া নেমে এসেছে।

জানাযায়, আদমদীঘির বশিকোড়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক খলিফার মাতা ফাতেমা বেওয়া বার্ধক্য জনিত কারনে গত বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় ইন্তেকাল করেন। মায়ের মৃত্যুর খবর শুনে ছেলে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক হৃদরোগে আক্রান্ত হলে স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা করা হয়। তার অবস্থার অবনতি ঘটলে মূমূর্ষ আব্দুর রাজ্জাককে হাসপাতালে নেয়ার পথে রাত ১১টায় তিনিও ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী দুই ছেলে, দুই মেয়ে নাতিনাতনীসহ অসংখ্যগুনগ্রাহি রেগে গেলেন। পরদিন বৃহস্পতিবার বাদ জোহর একই স্থানে পৃথক ভাবে মরহুমা ও মরহুমের নামাজে জানাজা শেষে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক খলিফাকে রাষ্ট্রীয় মর্য্যাদায় পারিবারিক গোড়স্থানে দাফন করা হয়। তাদের নামাজে জানাজায় উপজেলা নির্বাহি অফিসার সাদেকুর রহমান, ওসি মনিরুল ইসলাম, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার অলহাজ্ব আব্দুল হামিদ, ডেপুটি কমান্ডার আবির উদ্দিন, আফজাল হোসেন, কুন্দগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান বেলাল হোসেনসহ বহু মুসল্লি শরীক হন।
#

Top