উৎসবমুখর পরিবেশে রাঙ্গুনিয়ায় স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন

received_2102427916714551.jpeg

জাহেদুর রহমান সোহাগ ,স্টাফ রিপোর্টার,চট্টগ্রাম ;

সারিবদ্ধ হয়ে লাইনে দাড়িয়ে সুশৃঙ্খল ভাবে ভোট দিচ্ছেন স্কুলের ছ্ত্রা-ছাত্রীরা । দেখে মনে হতে পারে এ যেন জাতীয় নির্বাচনের দৃশ্য ।আসলে তা নয় । মূলত মাধ্যমিক স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনের দৃশ্য এটি। বাংলাদেশের সরকারের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর কতৃক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ও দাখিল মাদ্রাসায় স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন ২০১৯ আজ ১৪ মার্চ বৃহস্পতিবার সারা দেশের মতো চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ৪২টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে একযোগে সম্পন্ন হয়েছে ।
সরেজমিনে রাঙ্গুনিয়া সোনারগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ভোট গ্রহন চলে । বেলা ২টার পর শুরু হয় ভোট গণনা । বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা অত্যন্ত সুসৃঙ্খলভাবে লাইনে দাড়িয়ে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে। ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণীর প্রায় ছয় শতাধিক জন ছাত্র-ছাত্রী তাদেও পছন্দ মত প্রার্থীকে ভোট দেয়। স্কুলে মোট ১৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্ধীতা করেন । এর মধ্যে ৪২৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয় ১০ম শ্রেণির ছাত্র মোঃ জাহেদ হোসেন । নিকটতম প্রার্থী ৯ম শ্রেণির তাজজিরুল আলম পায় ৩০৬ ভোট । বিজয়ীরা হলেন ৬ষ্ঠ শ্রেণীর দীপু দেওয়ানজী (২৯৯ভোট ), প্রাপ্তী বড়–য়া (২৫১ভোট), ৭ম শ্রেণির বিজয় দেওয়ানজী (২৯৫ভোট), ৮ম শ্রেণির ফারিয়া ইয়াছমিন রিয়া (২৮৭ভোট), ৯ম শ্রেণির সাদিয়া সুলতানা (২৩২ভোট), দশন শ্রেণির আছিফা হোসেন (২৯৮ভোট)।
ভোট কেন্দ্রে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন রিয়ার বক্স চৌধুরী, সহকারী কমিশনার ইয়াছিন আরাফাত , প্রিজাইডিং অফিসার শুভ রাজ বড়–য়া ।
নির্বাচনের ব্যাপারে সোনারগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের স্কুলের প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন বলেন ; এ ধরণের নির্বাচন ছাত্র-ছাত্রীদেকে ব্যাপক আলোড়িত করেছে । সরকারের এ উদ্দোগকে তিনি সাধুবাদ জানিয়ে বলেন , মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ছাত্র-ছাত্রীদেও মাঝে গণতন্ত্রের চর্চা এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের তৈরি হবে । পাশাপাশি স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচিত ছাত্র-ছাত্রীরা বিদ্যালয়ের পরিবেশ উন্নয়ন কর্মকান্ডে ভ’মিকা রাখবে ।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম বলেন ; উপজেলার ৪২টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সুসৃঙ্খলভাবে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে । ইতিমধ্যে বিভিন্ন বিদ্যালয়ে ফরাফল ঘোষণা হয়েছে । ছাত্র-ছাত্রীরা উৎসবমুখর পরিবেশে পছন্দের প্রার্থী নির্বাচন করেছে । নির্বাচন সুসম্পন্ন করার জন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও দুজন নির্বাচন কমিশনার ও প্রিজাইডিং অফিসার ও পুলিং এজেন্ট ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝ থেকে মনোনিত করা হয় মূলত তারাই নির্বাচনটি পরিচালনা করেন ।

Top