দোয়ারাবাজার উপজেলা নির্বাচনে প্রচারণা আছে, আমেজ নেই

images130.jpg

এম এ মোতালিব ভুইয়াঃ
আগামী ১০ই মার্চ দোয়ারাবাজার উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থীদের মাঝে প্রচারণা কার্যক্রম থাকলেও আমেজ নেই খুব একটা। অদৃশ্য আশংকা-আতংকে দিন কাটছে ভোটার-প্রার্থীদের।

উপজেলা নির্বাচনে উৎসব মুখর পরিবেশ বিরাজ করে থাকে। তবে ব্যতিক্রম শুধু এবারই দেখছেন সাধারণ ভোটাররা

দলীয় প্রতীকে চেয়ারম্যান প্রার্থী সরকারি দল আ‘লীগের ১জন,আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী ২জন ,বিএনপি‘র স্বতন্ত্র প্রার্থী ১জন ও জাতীয় পার্টির ১ জন সহ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৫ জন।
ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৩জন,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪জন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে প্রচারণা চালাচ্ছেন।

নির্বাচনের শেষ মূহুর্তেও জমেনি আমেজ, উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের রিক্সা চালক আমির হোসেন (৪০) বলেন , ভোট দিতে পারবো কিনা জানিনা। পরিস্থিতি ভাল লাগছেনা।

ভোটে গোলমাল হতে পারে কিনা-এমন কথা জিজ্ঞেস করলে তিনি আরো বলেন,সুষ্ঠু ভোট হলে ভোট দিতে যাব,গন্ডগোল হলে ভোট কেন্দ্রেই যাবনা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী বলেন, ভোটের আগেই আশংকা দেখছি। আদৌ ভোট দিতে পারব কিনা জানিনা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন শিক্ষক বলেন, উপজেলা জুড়ে গুজব রটেছে, সরকারি দল ভোটে প্রভাব খাটাতে পারে। এটি দু:চিন্তার বিষয় বৈকি। প্রার্থীদের হাব-ভাব দেখে ভাল লাগছেনা। যে কোন কিছুর বিমিময়ে চেয়ারম্যান চাই-এমন পরিস্থিতি চলছে।ভোট কেড়ে নেয়া, কেন্দ্র দখল সহ প্রশাসনিক “বিশেষ সুবিধা” পেতে পারেন নৌকা প্রতীক ধারী। এমন আশংকার কথা জানান সাধারণ ভোটাররা। ভোট সুষ্ঠ হবে-কিনা এ আশংকাও বিরাজ করছে তাদের মাঝে।
আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রাথী ও আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সমর্থকদের মাঝে পেশী শক্তির মহড়া চলছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান। এতে সাধারণ ভোটাররা কেন্দ্রে যেতেও ভয় পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

অপর দিকে দোয়ারাবাজার উপজেলা বিএনপি‘র সাবেক সাধারণ সম্পাদক স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃহারুন অর রশিদের অবস্থান ভাল বলে জানান তৃণমূল ভোটাররা।

হারুন অর রশিদ বলেন, ভোট নিয়ে আতংকে আছি। ভোটাররা ভোট দিতে পারবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ বাড়ছে। তবে তিনি সুষ্ঠু ভোট আশা করেন প্রশাসনের কাছে।

আ‘লীগের তৃণমূল নেতা আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান তানবীর আশরাফী চৌধুরী সমর্থক সাবেক ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম ভুইয়া বলেন, ভোট সুষ্ঠু হবে। আতংকের কিছু নেই। তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা দেওয়ান তানবীর আশরাফী চৌধুরীকে সমর্থন দিয়েছেন বিপুল ভোটে কাপ পিরিছ প্রতীক বিজয়ী হবে ইনশাআল্লাহ।

দোয়ারাবাজার উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক রোটারিয়ান এম আবুল হোসেন বলেন, উপজেলার সকল কেন্দ্রেই ভোট সুষ্ঠু হবে। উপজেলার উন্নয়নের স্বার্থে ভোটাররা নৌকা প্রতীকে ভোট দেবে।
প্রশাসন সব সময় নিরপেক্ষ ভূমিকা রাখছে এবং ভোটের দিনও এ নিরপেক্ষতা বজায় থাকবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

Top