চকরিয়ায় সাঈদীর সমর্থনে মিছিল ও সড়ক-উপসড়কে শতশত কলাগাছ

saydi-chakaria-10-2-19-1.jpg

সাঈদী আকবর ফয়সাল,চকরিয়া:
সারাদেশে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকে মনোনয়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয় হতে ২য় ধাপের মনোনয়ন নিশ্চিতকারীদের নাম ঘোষণা করা হয়। ইতিপূর্বে চকরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীতা নিশ্চিতকল্পে উপজেলা আওয়ামীলীগের তৃণমূল প্রতিনিধি সভার সিদ্ধান্ত ও জেলা আওয়ামীলীগের সিদ্ধান্ত মোতাবেক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, জাহেদুল ইসলাম লিটু ও ফজলুল করিম সাঈদীর নাম কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ডে পাঠানো হয়েছে। এমনকি কেন্দ্রীয় বোর্ড থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন উক্ত ৩জনসহ ৬জন প্রার্থী। সর্বশেষ ১০ ফেব্রæয়ারী সকালে নৌকা প্রতীকে একক প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণা করেন চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফাসিয়াখালী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর নাম। এদিকে তৃণমূল পর্যায়ে জনপ্রিয় নেতা হিসেবে সকলের কাছে পরিচিত মনোনয়ন বঞ্চিত হওয়ায় চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি শ্রমিক নেতা ও ক্রীড়া সংগঠক ফজলুল করিম সাঈদীর সমর্থনে এবং নৌকা প্রতীকের প্রার্থী পরিবর্তনের দাবীতে এদিন গভীর রাত পর্যন্ত কলা গাছ হাতে নিয়ে শতশত নেতাকর্মী মহাসড়কে এবং বিভিন্ন ইউনিয়ন ও পৌরসভা ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন।

এক পর্যায়ে মহাসড়কের অভ্যন্তরীণসড়ক বিভিন্ন শাখা সড়কে কলাগাছ রোপন সাঈদীর প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করেছেন। এসময় মিছিল সমাবেশ ও কলাগাছ রোপনকালে উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর রেজাউল করিমসহ পৌরসভার বেশ কয়েক কাউন্সিলর এবং আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা। দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তাদের একটাই দাবী তৃণমূলের নেতাকর্মী সাঈদীকে একক প্রার্থী দেওয়া হোক, অন্যথায় স্বতন্ত প্রার্থী হিসেবে সাঈদীকে আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে বিজয়ী করে নেত্রীকে এবং চকরিয়া-পেকুয়ার নবনির্বচিত সাংসদ আলহাজ্ব জাফর আলমকে এই উপজেলা উপহার দেবেন।
অপরদিকে চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের যৌথ উদ্যোগে এক জরুরী সভা ১০ ফেব্রæয়ারী দুপুর ১১টায় পৌর শহরের অভিজাত রেষ্টুরেন্ট গ্রীণচিলি হলরুমে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভার সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা আতিক উদ্দিন চৌধুরী। সভায় বক্তব্য রাখেন পৌরসভা আওয়ামীলীগ, চকরিয়া পৌরসভার বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর, উপজেলা ও পৌরসভা যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিকলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, মাতামুহুরি সাংগঠনিক উপজেলা ছাত্রলীগসহ চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের আওতাধীন ৯ টি ওয়ার্ড সভাপতি সম্পাদকসহ তৃণমূল নেতাকর্মীরা।
জানতে চাইলে আওয়ামীলীগ নেতা ফজলুল করিম সাঈদী বলেন, রাজনৈতিক জীবনে কোনদিন দল থেকে বিচ্যুত হইনি। সব সময় সাধারণ মানুষের পাশে থেকে কাজ করেছি। দলের জন্য বার বার জেল-জুলুমের শিকার হয়েছি। তাই তিনি জনগণের অভূতপূর্ব সমর্থনকে কাজে লাগিয়ে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে লড়ে যাবেন এবং জননেত্রী শেখ হাসিনা ও প্রিয় নেতা জাফর আলম এমপিকে এই উপজেলা উপহার দেবেন।##

Top