জৈন্তাপুরের নাগা মরিছ দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানী হচ্ছে।

P_20190112_163713.jpg

Jpeg

এম,এম,রুহেল জৈন্তাপুর।
সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলা পর্যটন, শিল্প,বানিজ্যে খ্যাতির পাশাপাশি, কমলা লেবু, শিম,নাগা মরিছ চাষের জন্য দেশ বিখ্যাত।
এবার উপজেলার হেলিরাই,লুৎমহাইল,বারগাতি,করগ্রাম,নয়াগাতি সহ কয়েক গ্রামে নাগা মরিছ চাষ হয়েছে।হেলিরাই গ্রামের নাগা মরিছ চাষি আতিকুর রহমান জানান। তিনি এবার দুই হেক্টর জায়গায় নিয়ে হাজারের উপরে চারা রোপন করেছেন।তার এই জায়গায় প্রায় দুই লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে।তিনি বলেন গত বছর আগাম বন্যা হওয়ার কারনে ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছেন।এবার আবহাওয়া অনুকুল হলে সেই ক্ষতি পুশিয়ে উটবেন।চাষি রফিক উদ্দীন জানান তিনি প্রায় ৮০০ গাছ পরিচর্ঝা করছেন।তার গাছে মাজরা পোকা, গোটি পোকা, বিসা পোকার আক্রমনে নষ্ট হয়ে যাছে। যদি উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অফিস হতে পরামর্শ ও সহযোগিতা পেতেন তাহলে তিনি উপকৃত হতেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার ফারুক হোসাইনের সাথে আলাপ কালে তিনি বলেন পোকা ধমনের জন্য তাদের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে এবং প্রত্যেক চাষির মধ্যে উপজেলা কৃষি অফিস হতে পোকা ধমনের টব বিতরন করা হয়েছে।
এই এলাকার কৃষকরা আরো জানান এবার তাদের বাগানে ফলন বাম্পার হবে। তাদের এই নাগা মরিছ দেশ ছাড়িয়ে বিদেশে রপ্তানীর জন্য অর্ডার আগে থেকে দিয়ে রেখেছে পইকাররা।
তাদের অভিযোগ দাম প্রতি বস্তা মরিছ ৭/৮ হাজার এ বছর। এটা অত্যান্ত কম মূল্য তাদের পরিশ্রমের তুলনায়। যদি দাম আরো বৃদ্ধি হতো তবে তারা সঠিক মুল্য পেত।

এবার এই উপজেলা হতে কয়েক লক্ষ টাকার নাগা মরিছ ইউরোপ,আমেরিকা,সিঙ্গাপুর জাপান, চীন, দুবাই,সৌদি আরব সহ পৃথিবী বিভিন্ন দেশে রপ্তানী হবে।যাহা বাংলাদেশের অর্থনীতিতে উল্যেখযোগ্য ভুমিকা রাখবে।

Top