শীঘ্রই অাসছে “হ্যালো ছাত্রলীগে”

received_1266297286846073.jpeg

সিনজাত রহমান সানি(ঢাবি)

সরকারী সেবা হ্যালো (৯৯৯ ) জনপ্রিয় হওয়ার পর এবার ছাত্রলীগ উদ্যোগ নিয়েছে অনুরুপ সেবা , যার নাম হবে
“হ্যালো ছাত্রলীগ “! যার কোড নাম্বার হতে পারে- ১৯৭১ , এমনটাই জানিয়েছেন মানবতার ফেরিওয়ালা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

যা থাকবে “হ্যালো ছাত্রলীগে”

* একজন সাধারণ মানুষ কোথাও অন্যায়ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত স্বীকার হলে সেখান থেকে হ্যালো ছাত্রলীগ এর কোডে কল দিলে তাৎক্ষনিক সেখানকার সংশ্লিষ্ট ছাত্রলীগ ইউনিট নেতাকর্মীরা এগিয়ে যাবেন।

* একজন সাধারণ মানুষ মধ্যরাতে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে যেতে চাইলে “হ্যালো ছাত্রলীগ” এম্বুলেন্স ব্যবস্থা করে হাসপাতালে নিয়ে যাবে।

* আগুন লাগলে কোথাও সবচেয়ে কাছের ফায়ার স্টেশনের খবর জানাবো”।তারপর সংশ্লিষ্ট ছাত্রলীগ ইউনিটের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাকর্মী সাধারণ মানুষের পাশে যাবে।

* কৃষিকাজে বাংলাদেশের সাধারণ কৃষক যেখনো বিষয়ের সম্পর্কে সহযোগিতা করবে হ্যালো ছাত্রলীগ।

(১) খরচ ছাড়াই প্রযুক্তি সহয়তা পাওয়া যায়।
প্রযুক্তি ব্যবহারের পদ্ধতি সম্পর্কে জানা যায়।

(২) কোন প্রযুক্তি কোন ক্ষেত্রে ব্যবহার হবে তা জানা যায়।

(৩)অধিক লাভবান হওয়া যায়।ফসল চাষে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসে।
সেখানে কাজ করবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর কৃষি কলেজ ও কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এর ছাত্রলীগ নেতাকর্মী।

* বাল্য বিবাহ বন্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা উচিত। বাংলাদেশে বাল্য বিবাহ একটি মারাত্মক সমস্যা৷ এই সমস্যা সমাধান করতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ পাশে থাকবে।যেখানেই বাল্যবিবাহ হতে দেখা যাবে সেখানেই “হ্যালো ছাত্রলীগ” এর সহযোগিতায় বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ করতে সংশ্লিষ্ট থানার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সাথে নিয়ে প্রতিবাত করবে “হ্যালো ছাত্রলীগ”

*শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অনিয়ম সহ সাধারণ ছাত্রছাত্রীর পাশে “হ্যালো ছাত্রলীগ” সব সময় পাশে পাবে।

* সাধারণ মানুষের যেখনো সমস্যায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের “হ্যালো ছাত্রলীগ পাশে থাকবে।
যেখানে অন্যায় সেখানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশে “হ্যালো ছাত্রলীগ” সাধারণ মানুষের পাশে থাকবে।

*এছাড়া আরো অনেক সেবা থাকবে হ্যালো ছাত্রলীগে।সাধারণ মানুষের কাছে ছাত্রলীগ থাকবে বিপদের বন্ধু।

Top