ক্ষেত্রবাজারে তিন দোকান থেকে আড়াই লক্ষধিক টাকার মালামাল চুরি

47689024_405494283323651_5965473720309907456_n.jpg

স্টাফ রিপোর্টার; রাঙ্গুনিয়া
বিভিন্ন এলাকায় বেড়ে চলেছে চুরির ঘটনা। উপজেলার সরফভাটা ক্ষেত্রবাজারে দুইদিনের ব্যবধানে পৃথক চুরির ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) দিনগত রাতে ও বৃহস্পতিবার রাতে এই চুরির ঘটনায় জনমনে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে। মাদকাসক্ত ও জুয়ারীরাই এই চুরির ঘটনায় জড়িত বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।
সরফভাটা ক্ষেত্রবাজার এলাকার ব্যবসায়ী মো. জানে আলম জনি বলেন, শুক্রবার দিনগত রাতে বাজারের মেহেরিয়া স্টোর ও হোসেন স্টোর নামে দুটি মুদির দোকানে চুরির ঘটনা ঘটেছে। সুকৌশলে দোকানের চাউনির টিন কেটে তারা ভেতরে প্রবেশ করে এই ঘটনা ঘটায়। ঘটনায় প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে গেছে সংজ্ঞবদ্ধ চোরের দল। এর 2আগে বৃহস্পতিবার রাতে বনি আদম স্টোর নামে অন্য একটি দোকানেও একই ভাবে চুরির ঘটনায় প্রায় লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি হয়েছে। এভাবে টানা চুরির ঘটনায় বাজারের ব্যবসায়ীদেও মাঝে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে বলে তিনি জানান।
বাজারের সাবেক সহ সভাপতি মো. হাসান বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে বাজারের কোন কমিটি নেই। বাজারের সিসি ক্যামরাগুলাও অচল হয়ে পড়ে আছে। এছাড়াও গত ছয়মাস ধরে বাজারের কোন দারোয়ানও নেই। তবে মনে হচ্ছে মাদাকাশক্ত ও জুয়ারীরাই এই চুরির ঘটনা ঘটিয়েছে।
রাঙ্গুনিয়া থানার এসআই মো. ভুলু মিয়া বলেন, ‘ঘটনায় তারা লিখিত কোন অভিযোগ দেয়নি। তবে চুরির ঘটনা কমাতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পুলিশি টহল জোরদার করা হচ্ছে। ক্ষেত্রবাজারে চুরির ঘটনার তদন্ত চলছে। ঘটনার সাথে কারা জড়িত তাদের দ্রুত সনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে।’
এদিকে বিভিন্ন এলাকাজুড়ে জুয়া খেলার ব্যাপকতা, মাদকের সহজলভ্যতা ও ছড়াছড়িতে এই চুরির ঘটনা দিন দিন বেড়ে চলেছে বলে মনে করছেন সচেতন মহল। তাই এখনই এর লাগাম টেনে না ধরলে তা ভয়াবহ আকার ধারণ করবে বলে ধারণা করছেন ভুক্তভোগীরা।

Top