হাজী ইলিয়াছ এমপির প্রচেষ্টায় চকরিয়া-পেকুয়ার ১০ বিদ্যালয় পেল ১৫ কোটি ৭০ লাখ টাকার বরাদ্ধ

mp-elias-chakaria.jpg

সাঈদী আকবর ফয়সাল,চকরিয়া:
চকরিয়া-পেকুয়া আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ মোহাম্মদ ইলিয়াছের একান্ত প্রচেষ্টায় চকরিয়া-পেকুয়ার ১০টি উচ্চ বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের উর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণে প্রত্যেক প্রতিষ্ঠানে ১কোটি ৫৭ লক্ষ টাকা করে ১৫কোটি ৭০ লাখ টাকার বরাদ্ধ পেয়েছেন। সত্যতা নিশ্চিত করেছেন হাজী ইলিয়াছ এমপির একান্ত সহকারী মো: নাজিম উদ্দিন। তিনি বলেন, ইতিপূর্বে চকরিয়া-পেকুয়ার আরো ২০টি মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৫০ কোটি টাকার অধিক বরাদ্ধ দিয়ে উন্নয়নকাজ প্রায় সমাপ্ত করা হয়েছে। শীঘ্রই অবশিষ্ট তালিকাভূক্ত প্রতিষ্ঠানের জন্য হাজী ইলিয়াছ এমপি বরাদ্ধ পেয়ে যাবেন বলে জানান।
জানতে চাইলে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, কক্সবাজারের নির্বাহী প্রকৌশলী সমির কান্তি দাশ জানান, তার কার্যালয়ের নোটিশ বিজ্ঞপ্তি নং ০৪/ববফ/পনু/ব-২০১৮-১৯ মূলে চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলার ১০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের জন্য প্রাথমিক পর্যায়ে প্রতিটি বিদ্যালয়ে ১কোটি ৫৭ লাখ টাকা করে ১৫ কোটি ৭০ লাখ টাকা বরাদ্ধ পাওয়া গেছে। তন্মধ্যে ৭টি প্রতিষ্ঠানের টেন্ডার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়েছে এবং অবশিষ্ট ৩টি টেন্ডার আহবান প্রক্রিয়াধীন। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে; কৈয়ারবিল উচ্চ বিদ্যালয়, কাকারা উচ্চ বিদ্যালয়, মানিকপুর উচ্চ বিদ্যালয়, হারবাং ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়, কিশালয় আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, রাজাখালী ফয়েজুন্নেছা উচ্চ বিদ্যালয়, শিলখালী উচ্চ বিদ্যালয় এবং টেন্ডার প্রক্রিয়াধীন রয়েছে; চকরিয়া কেন্দ্রীয় উচ্চ বিদ্যালয়, ইলিশিয়া জমিলা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়, খুটাখালী উচ্চ বিদ্যালয় রয়েছে। নির্বাহী প্রকৌশলী আরো জানান, ১০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে খুব শীঘ্রই কাজ শুরু হবে। সাংসদের একান্ত প্রচেষ্টায় পূর্বে থেকে স্থাপিত একাডেমিক ভবনের উপরে ২য় অথবা ৩য় তলার কাজ সম্পন্ন (একাডেমিক ভবন উর্ধমুখী সম্প্রসারণ) করতেই প্রতি প্রতিষ্ঠানে ১কোটি ৫৭ লাক টাকা করে বরাদ্ধ পাওয়া গেছে। ৩ অক্টোবর’১৮ইং সিডিউল অনুযায়ী টেন্ডার আহবানের শেষ সময় ছিল।##

Top