মোবাইল ছিনতাইকারীর অভিনব কৌশল : টার্গেট শিক্ষার্থীরা

IMG_20181004_115809.jpg

রাইয়ান ওয়াহিদ:

চট্টগ্রামের সিআরবি এলাকা থেকে ছিনতাইকারী চক্রের ৮ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২ অক্টোবর) সকালে ছিনতাই করা মোবাইল এবং ছুরিসহ তাদের আটক করা হয় বলে জানায় পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন- আহাদুল ইসলাম রায়হান (২০), মো. ইউসুফ (২০), মো. হাবিবুর রহমান হৃদয় (২০), মেহেদী হাসান রবিন (১৯), মো. ইয়ামিন হোসেন (১৯), মাহমুদুর রহমান মাহিম (১৮), সাজ্জাদ হোসেন হৃদয় (১৮), ও মো. গোলাম হাসান (১৮)।

কোতোয়ালী থানার পরিদর্শক কামরুজ্জামান জানান, সিআরবি এলাকায় আরাফাতুর রহমান নামে সিটি কলেজের এক শিক্ষার্থী বন্ধুদের নিয়ে বের হয়। এমন সময় তার মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে নেয় ছিনতাইকারী দলটি। পরে ওই শিক্ষার্থীর চিৎকারে লোকজন এবং টহল পুলিশ এসে ছিনতাইকারী ১ জনকে আটক করে। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বাকি ৮ জনকে আটক করতে সমর্থ হয় পুলিশ।

ছিনতাইকারীদের ছিনতাইয়ের বিবরণ দিতে গিয়ে তিনি বলেন, এই ছিনতাইকারী দলের ছিনতাইয়ের ধরন অভিনব। যে সব জায়গায় স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা চলাচল করে সেসব এলাকায় এ ছিনতাইকারীরা আড্ডা দেয়। যাদের হাতে মূলত দামি স্মার্টফোন থাকে প্রথমে তাদের টার্গেট করে। পরে ১ জন টার্গেটের কাছে যায় আর ২ জন পাশে থাকে, অপর ৫ জন একটু দূরে অবস্থান নেয়।

‘টার্গেটকে প্রথমে ১ জন গিয়ে হঠাৎ বলে যে, তুমি তোমার মোবাইল দিয়ে আমার বড় ভাই বা বোনের ছবি তুলেছ, মোবাইলটা দাও বলেই তৎক্ষণাৎ মোবাইলটি নিয়ে নেয়। এরপর পাশে থাকা অপর ২ জন টার্গেটকে ধমক দেয়, মারধরের চেষ্টা করে, ভয়ভীতিও দেখায়। এরপরও যদি টার্গেট কোনোভাবে চিৎকার চেঁচামেচি করার চেষ্টা করে। তখন দূরে থাকা অপর ৫ জন ঘটনাস্থলে এসে এমনভাবে জটলা সৃষ্টি করে যেন মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়া প্রথম জন কৌশলে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যেতে পারে।’

গ্রেফতার ৮ জনের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Top