নড়বড়ে সাকোঁ দিয়ে পারাপার হচ্ছে দুই উপজেলার মানুষ

J-pic-01-04-10-2018.jpg

রোকনুজ্জামান সবুজ জামালপুর :
জামালপুরের মেলান্দহ-ইসলামপুর উপজেলা সংযোগ সড়কের হরকাখালি খালের নড়বড়ে একটি বাশের সাকোঁ দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে দুই উপজেলার মানুষ। জানা যায়, মেলান্দহ-ইসলামপুর উপজেলার সংযোগ সড়কের মাহমুদপুর-নোয়ারপাড়া ইউনিয়নের সীমান্ত এলাকা হরকা এলাকা নামক স্থানে গত বন্যায় ভেঙে একটি খালের সৃষ্টি হয়। বর্তমানে সেটি হরকাখাল নামে পরিচিত। দুই উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ সড়কের ওই খালে ব্রিজ নির্মাণ না হওয়ায় দুই উপজেলার মানুষের দূর্ভোগ চরমে উঠেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ মেলান্দহ-ইসলামপুর উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসা কেন্দ্র মাহমুদপুর বাজার-ধর্মকুড়া বাজারের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটাতে ধর্মকুড়া-মাহমুদপুর জিসি নামে এ সড়কটি নির্মাণ করেছিলো। বন্যায় সড়কটি ভেঙে যাওয়ায় হাজার হাজার পথচারী ও কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী চরম দূর্ভোগ পোহাচ্ছে। স্থানীয় আল-মাহমুদ, জালাল সরকার, রাজিব হোসেনসহ অনেকেই জানান, জেলার দুই উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় হরকাখালের উপর কোন উপজেলাই ব্রিজ নির্মাণের দায়িত্ব নিচ্ছে না। স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, এ বছর বন্যার পানি না আসায় কষ্ট হলেও সাকোঁর নিচ দিয়ে যানবাহন ও পথচারী চলাচল করতে পারছে। বন্যা মওসুমে দুই উপজেলার সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে ব্যবসা-বাণিজ্যের ব্যাপক ক্ষতি হয়। স্থানীয় সাইদুর রহমান মাস্টার জানান, বাশের সাকোঁটিও নড়বড়ে হয়ে যাওয়ায় পথচারীরা সাকোঁর উপর দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে খাল পারাপারে বাধ্য হচ্ছেন।

Top