কর্ণফুলীতে ছাত্রলীগ কর্মী মামুন হত্যা মামলার আসামি ওমর গ্রেপ্তার

received_168998220689225-1.jpeg

ডি এইচ মনসুর
কর্ণফুলী উপজেলা ছাত্রলীগ কর্মী মামুন আল রশিদ হত্যা মামলার ৩ নম্বর আসামি মোহাম্মদ ওমরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ভোরে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল দুই দিন ধরে অভিযান চালিয়ে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ার চর থেকে আজ ভোরে ওমরকে গ্রেপ্তার করে। তিনি খালার বাসায় আত্মগোপন করে ছিলেন। মামলার অপর আসামিরা হলেন মোহাম্মদ আজম, মো. আশিক, মোহাম্মদ শাহনূর ও আলী আজম।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ছাত্রলীগ কর্মী মামুন আল রশিদকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। ওই সময় মামুনের সঙ্গে থাকা আরেক ছাত্রলীগ কর্মী আজিজ গুরুতর আহত হন। ঘটনার এক দিন পর নিহত মামুনের বড় ভাই মোহাম্মদ ইয়াসিন বাদী হয়ে পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেন।

স্থানীয় লোকজনের মতে, এলাকায় মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার কারণে এবং আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে নিজ দলের প্রতিপক্ষের হাতে খুন হয়েছেন মামুন।

কর্ণফুলী থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হাসান ইমাম বলেন, ‘মামুন হত্যা মামলার সব আসামিকে গ্রেপ্তারের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছি আমরা। আশা করি, কম সময়ের মধ্যে সবাইকে গ্রেপ্তার করতে পারব।

আসামি গ্রেপ্তারের ব্যাপারে কর্ণফুলী জোনের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার জাহেদুল ইসলাম বলেন, দুই দিন অভিযান চালিয়ে মামুন হত্যা মামলার আসামি মোহাম্মদ ওমরকে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর এলাকার খালার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সত্যতা স্বীকার করেন।

Top