জগন্নাথপুরে বকেয়া বিদ্যুৎ বিল আদায়ে কঠোর পদক্ষেপ

download.jpg

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি ::

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে বকেয়া বিদ্যুৎ বিল আদায়ে কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছেন বিদ্যুৎ বিভাগ। এতে গ্রাহকরা বিপদে পড়ার আশঙ্কা বিরাজ করছে। তাই যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব গ্রাহকরা তাদের বকেয়া বিল পরিশোধ করতে শেষ বারের মতো তাগিদ দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।
জানাগেছে, জগন্নাথপুরে ১৬ হাজার বিদ্যুৎ গ্রাহক রয়েছেন। এর মধ্যে ৪ হাজার গ্রাহকের কাছে প্রায় ৭ কোটি টাকা বকেয়া বিল রয়েছে। দীর্ঘ ৬ মাস অতিবাহিত হলেও গ্রাহকরা তাদের বকেয়া বিল দিচ্ছেন না। এছাড়া বকেয়া বিলের জন্য অনেকের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হলেও লুকিয়ে অনেকে আবার লাইন চালু করেন। এর মধ্যে অনেকের বিচ্ছিন্ন সংযোগ বিভিন্ন শর্ত সাপেক্ষে আবার চালু করা হয়। বারবার সব ধরণের সুযোগ-সুবিধা দেয়া হলেও এক শ্রেণির গ্রাহকরা বকেয়া বিল পরিশোধ করছেন। অবশেষে বকেয়া বিল আদায়ে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ১ অক্টোবর সোমবার জগন্নাথপুর উপ-বিভাগীয় আবাসিক বিদ্যুৎ প্রকৌশলী আজিজুল ইসলাম আজাদ বলেন, সরকারি নির্দেশনায় বকেয়া বিদ্যুৎ আদায়ে আমাদেরকে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হচ্ছে। এখন থেকে বকেয়া বিদ্যুৎ বিল আদায়ে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করণ অভিযান অব্যাহত থাকবে। সেই সাথে যাদের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে, অবশ্যই সাথে সাথে তাদের বিরুদ্ধে মামলা সহ কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে। এতে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না, বা ছাড় দেয়ার কোন সুযোগ নেই। তাই যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব সম্মানের সাথে নিজ উদ্যোগে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার আগে অফিসে এসে বকেয়া বিদ্যুৎ বিল প্রদানের জন্য তিনি গ্রাহকদের প্রতি আহবান জানান। সেই সাথে উপজেলার প্রায় ১৫০টি মসজিদ ও মন্দিরের বকেয়া বিল প্রদানে তিনি সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন। তা না হলে বাধ্য হয়ে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে হবে বলে তিনি জানান। #

Top