কাশিয়ানী উপজেলার রাতইল নায়েবুন্নেছা ইনিস্টিটিউশনের ৬৫ তম বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

31431068_2117611288470119_2110220249746898944_n.jpg

প্রসীদ কুমার দাস,গোপালগঞ্জ প্রতিনিধিঃ-

”ক্রীড়া ই বল ক্রীড়া ই শক্তি”
তারই ধারাবাহিকতায় কাশিয়ানী উপজেলার রাতইল ইউনিয়নের নায়েবুন্নেছা ইনস্টিটিউশন এর ৬৫ তম বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোজ শুক্রবার সকাল ৮ টার সময় জাতীয় সঙ্গীতের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা ও ক্রীড়া পতাকা উত্তোলন এবং অগ্নি মর্শাল জ্বেলে শুরু করা হয়েছিল গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার নায়েবুন্নেছা ইনস্টিটিউশনের ২ দিন ব্যাপি বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান -২০১৮।

অনুষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনায় ছিল রাতইল নায়েবুন্নেছা ইনস্টিটিউশন এর সকল শিক্ষক- শিক্ষিকাবৃন্দ ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি।

বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানটি সুন্দর ভাবে পরিচালনায় সহযোগিতা করেছে বিদ্যালয়ের সকল ছাত্রছাত্রী ও রোভার স্কাউটের সদস্যগন।

বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন ও সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি দৈনিক নতুন দিন পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক জনাব মোঃ ইদ্রিস আলী নান্টু।

সার্বিক তও্বাবধানে ছিলেন রাতইল নায়েবুন্নেছা ইনস্টিটিউশনের প্রধান শিক্ষক জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অভিভাবক সদস্য জনাব সাজ্জাত হোসেন মিনা, অভিভাবক সদস্য জনাব লালচান ফকির, অভিভাবক সদস্য জনাব তুহিন সরদার, অভিভাবক সদস্য জনাব ওহাব মুন্সী, সংরক্ষিতা মহিলা অভিভাবক সদস্য জনাব রিক্তা পারভীন, কো-অপ্ট সদস্য জনাব মোঃ শাহজাহান মোল্যা।

প্রতিবছরের ন্যায় নানা আয়োজনে ও বর্ণিল সাজে সাজানো হয়ে ছিলো বিদ্যালয়ের প্রত্যেকটি প্রান্তর। শনিবার বিকাল ৩ টার সময় বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের মধ্য পুরস্কার বিতরনী করা হয় এবং বিকাল ৪ টার সময় এক মনঙ্গ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শেষে সন্ধ্যা ৬ টার সময় বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করেন রাতইল নায়েবুন্নেছা ইনস্টিটিউশন প্রধান শিক্ষক জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম ।

Top