বর্ণিল সাজে সেজেছে ঠাকুরগাঁও ; অপেক্ষা এখন প্রধানমন্ত্রীর

IMG_20180329_075429.jpg
ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা :
শহর সেজেঁছে বর্ণিল রঙ বেরঙ এর তোরণ ও লাইট দিয়ে। সাধারণ মানুষ ঘর ছেড়ে রাস্তায় নেমে এসেছে। সাজাঁনো তোরণ, ফেস্টুন ও রঙ্গিন লাইটের আলো দেখতে রাতের বেলা পরিবার পরিজন নিয়ে ভীড় করছে সাধারণ মানুষ। কেউ সেল্ফি তুলছে আবার কেও পরিবার নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। পুরো শহর জুরে এক আনন্দঘন পরিবেশ বিরাজ করছে।
দীর্ঘ ১৭ বছর পর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঠাকুরগাঁওয়ে আগমন উপলক্ষ্যে পুরো শহর জুরে ব্যানার ফেস্টুন তোরণ ও রঙ্গিন লাইট দিয়ে সাজানো হয়েছে আর আনন্দ উল্লাসে মেতেছে দলীয় কর্মী সহ সাধারণ মানুষ।
ঠাকুরগাঁও শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে সুসজ্জিত করে গোলচত্বর সাজিয়েছে দলীয় নেতাকর্মীরা। সেই সুসজ্জিত গোলচত্বর, তোরণ দেখতে আসা গৃহিনী মোসলেমা আক্তারের সাথে কথা বললে তিনি জানান, ঠাকুরগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রী আসাকে কেন্দ্র করে যেভাবে সাজানো হয়েছে মনে হয় ঈদ আনন্দে মেতে উঠেছে সাধারণ মানুষ। তাই ছেলে-মেয়েকে নিয়ে দেখতে এসেছি আমাদের নতুন ঠাকুরগাঁও শহরকে। কালকে আমরা প্রথম ঠাকুরগাঁওয়ে প্রধাানমন্ত্রীকে সরাসরি সামনে থেকে দেখবো।
তোরণের সামনে সেলফি তুলতে আসা শহীদ হোসেনের কাছে প্রধানমন্ত্রী ঠাকুরগাওয়ে আগমন উপলক্ষে তার অনুভুতির কথা জানতে চাইলে সে জানায়, এতদিন প্রধানমন্ত্রীকে টেলিভিশনের সামনেই দেখেছি। দীর্ঘ ১৭ বছর পর তিনি ঠাকুরগাঁও আগমন করছেন। এর থেকে আনন্দ ঠাকুরগাঁওয়ের মানুষের কি হতে পারে? তাই সকলে যখন আনন্দ উল্লাসে মেতেছে, আমিও সেলফি তুলে স্মৃতির পাতায় দিনটি ধরে রাখতে চাই।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আগমনে শহর জুরে কড়া নিরাপত্তার পাশাপাশি যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। তাই সাধারণ মানুষ পুরো শহরজুরে বিভিন্ন তোরণ রঙ্গিন লাইট দিয়ে সাজানো, ফেস্টুন, ব্যানার হেটে হেটে দেখছেন।
ঠাকুরগাঁও জেলা পুলিশ সুপার ফারহাত আহমেদ বলেন, তিন স্থরের নিরাপত্তা ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে সকল প্রকার নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। সাদা পোশাকে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
জেলা প্রশাসক মো: আকতারুজ্জামান বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঠাকুরগাঁওয়ে জনসভা থেকে ৩৫টি কাজের উদ্বোধন করবেন ও ৩৩টি কাজের ভিত্তিপ্রস্থর এর নামফলক উম্মোচন করবেন। প্রধানমন্ত্রীকে ঠাকুরগাঁওয়ে স্বাগতম জানানোর জন্য সকল প্রকার প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, আগামিকাল বৃহস্পতিবার (২৯ মার্চ) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেলা সাড়ে ১১টায় ঠাকুরগাঁও বিজিবি সেক্টর মাঠে হেলিকপ্টারে অবতরণ করবেন। এরপর তিনি বিকাল ৩টায় বড় মাঠে ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় বক্তব্য রাখবেন। জনসভায় তিনি কয়েকটি স্থাপনা উদ্বোধন ও উন্নয়ন কাজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করবেন। বিকেল সাড়ে ৪টায় প্রধানমন্ত্রী হেলিকপ্টারে যোগে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেবেন জানিয়েছেন ঠাকুরগাঁও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জহিরুল ইসলাম।
Top