জগন্নাথপুরে বিদুৎপৃষ্ট হয়ে নিহত ১: আহত ৩

29513498_1917317388298999_1475419791_o.jpg

জুয়েল আহমদ,জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি::

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে রানীগঞ্জ ইউনিয়নে নারিকেলতলা গ্রামে বিদুৎপৃষ্ট হয়ে একজন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নারিকেলতলা গ্রামের প্রবাসী আনহার মিয়ার ছেলে আব্দুর রহিম (৭) গতকাল রবিবার সকাল ১১টায় বাড়িতে খেলায় চলে ঘরের পিছনে তাদের বাউন্ডারির ভিতরে থাকা বিদ্যুতের খুটির টানা দেওয়া তারের সাথে পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যায়। তাকে বাচাঁতে গিয়ে তার চাচাতো বোন সুনু মিয়ার মেয়ে লুভনা বেগম (২০),আহত হয়ে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে এ ভর্তি হয়েছে। সাথে থাকা সুনু মিয়ার স্ত্রী নুরফুল বিবি(৪৫) ও ফুলকাছ মিয়ার ছেলে নজরুল ইসলাম (২২) আহত হয়েছে।

তাদের দুইজনকে স্থানীয় বাজারে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে নিহতের চাচা ছমরু মিয়া বলেন, বার বার নিষেধ করা সত্ত্বেও জগন্নাথপুর বিদ্যুৎ অফিসের কর্মচারিরা যথাস্থানে না রেখে খুটির টানা তার আমাদের বাউন্ডারির ভিতরে স্থাপন করে। আমি তখন বলেছিলাম টানা তারের মধ্যে বিদ্যুৎ প্রবাহিত হতে পারে। আমাদের কথায় কান না দিয়ে বাউন্ডারির ভিতরে ঔ তার স্থাপন করে। আমি মনে করি আজকে আমার ভাতিজার মৃত্যুর একমাত্র কারন বিদ্যুৎ অফিসের কর্মচারিদের কামখেয়ালীপনা। আমি বর্তমান সরকারের কাছে ভাতিজা হত্যার বিচার চাই।

এ ব্যাপারে জগন্নাথপুর বিদ্যুৎ অফিসের প্রকৌশলী পাবেল আহমদের সাথে মুঠো ফোনে আলাপ করা হলে তিনি বলেন,নারিকেলতলা গ্রামের শিশু মৃত্যু খবর পেয়েছি। তাদের ঘরের সার্ভিস তার ফল্ট ছিল।সার্ভিস তার ক্রেলেম সাথে সংযুক্ত হয়ে টানা তারের মধ্যে বিদ্যুৎ প্রবাহিত হয় এজন্য তার মৃত্যু ঘটে। ঘটনা স্থল পরিদর্শনের সময় স্থানীয় ইউপি সদস্য আবুল কালাম উপস্থিত ছিলেন।

Top