ঢাকাবুধবার , ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  1. সর্বশেষ
  2. বিশেষ সংবাদ
  3. সারা বাংলা

ইসলামপুরে সরকারি প্রতিষ্ঠানে ঘর ভেঙে নিলেন সাবেক সভাপতি

প্রতিবেদক
নিউজ ডেস্ক
৭ মার্চ ২০২৩, ২:০৫ পূর্বাহ্ণ

Link Copied!

রোকনুজ্জামান সবুজ জামালপুঃ

জামালপুরের ইসলামপুরে উত্তর গঙ্গাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের টিন শেড ঘর ভেঙে নিলেন বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি।

ছাত্র-ছাত্রী অভিভাবক ও এলাকাবাসী জানান, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের সহযোগিতায় পুরাতন টিনশেড ঘরটি ভাঙা হয়েছে।
এ ঘটনায় এলাকাবাসী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ওই বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষিকা রেজিনা পারভীনের স্বামী ও ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সভাপতি ইউসুফ আলী সরকারি নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে নিলাম ছাড়াই পুরাতন টিনশেড ঘর ভেঙে তাদের বাড়িতে নিয়ে যায়।

পরবর্তীতে বিষয়টি জানাজানি হলে স্থাপনার ভাঙা কিছু অংশ বিদ্যালয়ে রাখেন।

রবিবার(৫মার্চ) সকালে ওই বিদ্যালয়ে সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, বিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশে একটি পুরাতন টিনশেড ঘর ছিল। ঘর ভেঙ্গেছে আর
দাঁড়িয়ে রয়েছে মাত্র কয়েকটি সিমেন্টের খাম।
টিনশেড ঘরের স্থাপনাগুলো অর্ধেক সভাপতির বাড়ি আর বাকী অংশগুলো বিদ্যালয়ের পশ্চিম দিকে নতুন ভবনের পাশে রাখা হয়েছে।

উত্তরগঙ্গাপাড়া গ্রামের ফজলুল হক জানান, ‘নিয়ম অনুযায়ী নিলামের মাধ্যমে সরকারি কোন স্থাপনা ভাঙতে হবে। নিলাম ছাড়াই কোন ক্ষমতার বলে ওই বিদ্যালয়ের পুরাতন টিনশেড ঘর ভেঙে নিয়ে যায়।

ওই এলাকার আলম সেখ, মোহাম্মদ আলী, ডাবলু মিয়াসহ আরও অনেকেই জানান, ‘প্রধান শিক্ষকের সহযোগিতায় সাবেক সভাপতি ও তার ছেলেরা মিলে ৬০হাত টিনশেড ঘর, ৪টি দরজা, ৬টি জানালা ভেঙে তাদের বাড়িতে নিয়ে যায়। কার অনুমতিতে বিদ্যালয় ভাঙা হচ্ছে জানতে চাইলে তারা বলেন, অফিস থেকে পারমিশন নেওয়া আছে। পরে আমাদের সন্দেহ হলে অফিসে যোগাযোগ করে জানতে পারি বিদ্যালয় ভাঙার বিষয়ে তারা কিছুই জানেন না।’

উত্তর গঙ্গাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহিনুর ইসলাম বলেন, ‘নিয়ম অনুযায়ী অফিসে আবেদন দিয়েছি পুরাতন ঘরটি ভাঙার জন্য। কিন্তু ওনি সাবেক সভাপতি ইউসুফ আলী কি কারণে ঘরটি ভাঙলেন আমি জানি না’।

অভিযুক্ত সাবেক সভাপতি ইউসুফ আলী ঘরটি ভাঙার বিষয়ে স্বীকার করে বলেন, ‘যেহুতু বিদ্যালয়ের জায়গা পরিবর্তন করে নতুন ভবন তোলা হয়েছে তাই সাবেক জায়গা থেকে পুরাতন ঘরটি ভেঙে স্থাপনা গুলো নতুন জায়গায় রেখে দিয়েছি পুনরায় ঘরটি নির্মাণের জন্য।

সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার (এটিইও) মোহাম্মদ আব্দুল গফুর খান জানান, ‘আমি সরেজমিনে গিয়ে জানতে পারি বিদ্যালয়ের পুরাতন একটি টিনশেড ঘর ভেঙে বিদ্যালয়ের একাংশে রাখা হয়েছে। উনি সাবেক সভাপতি কি কারণে ঘর ভেঙেছেন এটা আমার জানা নেই। বিষয়টি আমি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে পরামর্শ করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে’।

108 Views

আরও পড়ুন

রাঙামাটির পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে দু’চালক সংগঠনের সংঘর্ষে রণক্ষেত্র: আহত ২৬

মহাত্মা অশ্বিনী কুমার ছাত্রাবাসের শিক্ষার্থীদের প্রভাত ফেরি ও ফুলেল শ্রদ্ধার্ঘ্য অপর্ণ।

বোয়ালখালীতে জাতীয় শিক্ষা পদকের পুরস্কার বিতরণ সম্পন্ন

দোয়ারাবাজারে মদের চালানসহ কারবারি আটক

বইমেলায় মীরাক্কেলের রাশেদের বই ‘ফিলিং চিলিং’

ঠাকুরগাঁওয়ে সড়কে আঁকা আলপনায় একুশের চেতনা

বোয়ালখালীতে মেয়র গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন কাল

ঢাকা-কক্সবাজার পথে পাঁচ দিনে ৫ বিশেষ ট্রেন।।

কক্সবাজার সৈকতের সুগন্ধা বিচের নাম পাল্টে হলো ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’

সাপাহার সরফতুল্লাহ্ মাদ্রাসা কেন্দ্রে ভুয়া ৫৭ জন দাখিল পরীক্ষার্থী আটক

বইমেলায় পাওয়া যাচ্ছে মহিমা নুশরাতের বই “আদুরে ময়নাপাখি”

মেঘনা পেট্রোলিয়াম শ্রমিক ইউনিয়ন সিবিএ’র বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল