৮৬ বছর পর আয়া সোফিয়ায় আজ ফের নামাজ আদায়

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ২:২৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৫, ২০২০

অনলাই্ন ডেস্ক :

দীর্ঘ ৮৬ বছর পর আজ শুক্রবার জুমার নামাজ পড়ার মাধ্যমে মসজিদ হিসেবে ফের চালু হয়েছে তুরস্কের ঐতিহাসিক হায়া সোফিয়া।

গির্জা থেকে মসজিদ, পরে জাদুঘরে রূপান্তরিত হওয়া দেড় হাজার বছরের পুরনো হায়া সোফিয়াকে আবারো মসজিদ হিসেবে ঘোষণা দেওয়ার পর সেখানে প্রথমবারের মতো জুমার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ঐতিহাসিক এই মসজিদে অনুষ্ঠিত জুমার নামাজে অংশ নিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। হাজার হাজার মুসল্লি হায়া সোফিয়ায় এবং এর বাইরে জুমার নামাজ আদায় করছেন। ঐতিহাসিক এই মুহূর্তের অংশ হতে দেশটির বিভিন্ন প্রান্তে থেকে আসেন তারা। ১৯৩৪ সালের পর প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত জুমার নামাজে অংশ নিতে মসজিদে এসে উপস্থিত মুসল্লিদের কুরআন তেলাওয়াত করে শোনান প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান।

এ সময় এরদোয়ান পবিত্র কুরআন থেকে সুরা ফাতেহা এবং সুরা বাকারার কয়েকটি আয়াত তেলাওয়াত করেন।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ থেকে নামাজ সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। নামাজ আদায়ের জন্য উপস্থিত হন প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান।

ঐতিহাসিক স্থাপনাটি ৯১৬ বছর টানা চার্চ হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে। আর ১৪৫৩ সাল থেকে শুরু করে ১৯৩৫ সাল প্রায় ৫০০ বছর ধরে মসজিদ হিসেবেই পরিচিত ছিল এটি। এরপর ৮৬ ধরে এটা জাদুঘর হিসেবে পরিচিত ছিল।

গত ১০ জুলাই তুর্কি আদালতের রায়ে ১৯৩৪ সালের তৎকালীন মন্ত্রী পরিষদের জাদুঘরে রুপান্তরিত করার আদেশটি রহিত করার পর পুনরায় মসজিদ হিসেবে চালু করতে আর কোনো বাধা রইল না।

সুলতান দ্বিতীয় মুহাম্মদ (উসমানীয় সুলতান) মুহামেত কনস্টান্টিনোপল বিজয়ের পর খ্রিস্টানদের কাছ থেকে হায়া সোফিয়া কিনে নিয়ে স্থাপনাটি মসজিদে রূপান্তর করেন। ১৪৫৩ সালের ১ জুনে মসজিদে রূপান্তরিত হায়া সোফিয়ায় প্রথমবারের মতো জুমার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়, যাতে ইমামতি করেন ফাতিহয়ের শিক্ষক শায়খ আক শামসুদ্দিন।