সুনামগঞ্জের দিরাইয়ের দু-পক্ষের সংঘর্ষে বন্দুকের গুলিতে নিহত ১, বন্দুকধারী আটক

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ৩:৪৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯

মিজানুর রহমান রুমান,সুনামগঞ্জ :

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নের কালধর গ্রামে দু’পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনায় বন্দুকের গুলিতে একজন নিহত ও ৩০ জন আহত হয়েছেন।
আজ রোববার সকাল ১১টায় কালধর গ্রামের ফারুক মিয়ার কাছে গ্রামবাসীর পঞ্চায়েতেরে টাকা পাওনা নিয়ে প্রথমে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তার লোকজনের সাথে গ্রামবাসীর সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় প্রতিপক্ষ ফারুক মিয়া তার লাইসেন্স করা বন্দুক দিয়ে গ্রামবাসীর উপর গুলিবর্ষণ শুরু করেন। এ সময় আমির আলী(মেস্তুরী) নামে এক ব্যাক্তি গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনা স্থলেই নিহত হয়েছেন।
এ সময় ফারুকের ছোড়া গুলিবর্ষণে গ্রামাবসীর পক্ষে ৩০ জন লোকজন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে দিরাই থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনায় তাৎক্ষনিক পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বন্দুকসহ মোঃ ফারুক মিয়াকে আটক করা হয়েছে।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায় কালধর গ্রামের পঞ্চায়েতি বেশ কিছু টাকার হিসাব দীর্ঘদিন ধরে ফারুক মিয়া হিসাব নিকাশ না দিয়ে উল্টো গ্রামের নিরীহ লোকদের উপর মিথ্যা মামলা দায়ের করে হুমকি দামকী দিয়ে আসছিলেন। এ ঘটনার জেরেই প্রথমেক কথা কাটাকাটির এক পর্যায় গ্রামবাসীর সাথে ফারুক মিয়া গংদের সংঘর্ষ শুরু হয়ে এই হতাহতের ঘটনাটি ঘটে। এছাড়া ও বন্দুকধারী ফারুক মিয়ার বিরুদ্ধে এলাকার নিরীহ মানুষজনের জায়গা জমি জোরপূর্বক দখলসহ নানান অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
এ ব্যাপারে দিরাই থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ কে এম নজরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,বন্দুকধারী ফারুক মিয়াকে আটক করা হয়েছে। ##