ঢাকাশুক্রবার , ২১ জুনe ২০২৪
  1. সর্বশেষ

ভালোবাসা আর সম্মানের কাছে ক্ষুদ্র জীবন যে বড়ই ক্ষুদ্র – জয় পাল অর্ঘ

প্রতিবেদক
জুবায়েদ মোস্তফা
১৯ মার্চ ২০২৪, ৮:৪৬ অপরাহ্ণ

Link Copied!

দূরে আকাশের আকাশি নীল সৌন্দর্য উপভোগ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করা একজন সৌন্দর্য প্রেমিক কত হাহাকার করে, ধৈর্য্য ধরে আবার সূর্য উঠার অপেক্ষায়।তেমনি মানুষের অমায়িক মায়াবী অভিভূত সৌন্দর্যে ভরপুর দরদ মাখানো মনকে ঐ আকাশের মতো আলতো পরশে আচ্ছাদন করা যায় না, শুধু হৃদয়ের সুনিপুণ ভালোবাসা দিয়ে অনুভব করতে পারা যায়। অন্তর্নিহিত সৌন্দর্য উপভোগ করার ক্ষমতা তো সবার থাকে না,একটা মানুষকে সবার থেকে আলাদা করে এই সৌন্দর্য।তাই দেখবেন চেহারার প্রেমে পড়লে ভুলে যাওয়া যায় আস্তে আস্তে কিন্তু ব্যাক্তিত্বের প্রেমে পড়লে ভুলে যাওয়া অনেক টা অসম্ভব মনে হয়। একটা মানুষের প্রতি ভালোবাসা এমনি এমনি সৃষ্টি হয় না, তাঁর কথা বার্তা, অনিন্দ্য সুন্দর ব্যবহার, অসাধারণ বিনয়ী মনোভাব,বিপদে পাশে দাঁড়ানো,সাহস দেওয়া তাছাড়া ব্যাক্তিভেদে আরো অনেক কিছু। মানুষের থেকে ভালোবাসা পেতে হলে নিজের সুখ বিসর্জন দিতে হয় অনেক সময়,ত্যাগ তিতিক্ষা, কষ্ট,আরো কত কিছু। জোর করে ভালোবাসা পাওয়ার হাহাকার এটা বিলাসিতা ছাড়া আর কিছুই নয়। হয়তো সেই মানুষটার ভালোবাসা বা অভাব বাস্তবে সেই ভাবে বোঝা সম্ভব হয়ে ওঠে না, কিন্তু যখন সেই মানুষটি আর থাকে না তখন খালি খালি লাগে।আর মানুষের প্রতি এই প্রবল ভালোবাসা থেকেই তার প্রতি সম্মান জাগ্ৰত হয়। ভালোবাসা আর সম্মান কখনো অর্থ সম্পদ দিয়ে পাওয়া যায় না। এই পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সত্য হচ্ছে মৃত্যু, আপনার হয়তো অনেক কিছু আছে কিন্তু মৃত্যুর কাছে পরাজিত আপনাকে হতেই হবে,এ যে অমোঘ সত্য। আপনি আজ আছেন কিন্তু কাল যে এই পৃথিবীতে শুধু আপনার মূল্যহীন দেহ টা পড়ে থাকবে না এর নিশ্চয়তা কি আপনি দিতে পারেন, কিন্তু একটা নির্দিষ্ট সময় পর আপনি আপনার কর্মের মাধ্যমে, ভালোবাসার মাধ্যমে, আপনার ব্যাক্তিত্বের মাধ্যমে এইটুকু বুঝতে পারবেন আপনি মানুষের হৃদয়ে আজীবন কীভাবে থাকবেন। কিন্তু এখনকার জেনারেশন এ এইসব সত্যিকারের ভালোবাসা সম্মান এইগুলো নেই বললেই চলে,এসব ব্যাপারে বোঝা তো দূরের কথা,অনেকের সাথে এইসব ব্যাপারে কথা বলতে গেলেও ভয় লাগে। আবার একটা গোষ্ঠী আছে তারা জোর করে ভালোবাসা আর সম্মান পাওয়ার জন্য হাহাকার করে কিন্তু বাস্তবে কি এটা কখনো সম্ভব। আবার কেনো যেনো মনে হয় যাদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা উচিত তাঁরাই যেনো আর এইসব সম্মান পেতে চান না। কিন্তু এখনো সময় আছে সবাই মিলে একসাথে চেষ্টা করতে পারলে নিজের ভিতরের সেই শক্তিকে জাগ্ৰত করা সম্ভব যা দিয়ে মানুষের মন জয় করা সম্ভব, তাদের হৃদয়ে বেঁচে থাকা সম্ভব। আমাদের তো এটাই প্রবল ইচ্ছা থাকা দরকার যে যখন আমি মারা যাব তারপর আমাকে যারা চিনতো তাঁরা আমার জন্য নিঃশব্দে দুই এক ফোঁটা চোখের জল ফেলবে,এর ভিতরেই তো অকৃত্রিম আনন্দ চিরজীবী থাকবে তখন,এই ইচ্ছা টা জাগ্ৰত করতে আগে দুঃসাহসী হতে হবে। কবি কাজী নজরুল ইসলাম তাঁর একটি গানে বলেছিলেন “বাগিচায় বুলবুলি তুই ফুল শাখাতে দিস নে আজি দোল” কত আবেগ ছিল কথাটার ভিতরে,সব ই একদিন ধ্বংস হয়ে যাবে, কিন্তু মানুষের হৃদয়ে একবার যদি কেউ ভালোবাসা আর সম্মানের দোলা লাগাতে পারে ঠিক নদীতে মাঝির পাল তোলা নৌকার মতো,তাহলে সবকিছু জয় করা সম্ভব।এই কারনেই তো বললাম ভালোবাসা আর সম্মানের কাছে ক্ষুদ্র জীবন যে বড়ই ক্ষুদ্র।

জয় পাল অর্ঘ
শিক্ষার্থী, ফার্মেসী বিভাগ
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

295 Views

আরও পড়ুন

রূপগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন : সহিংসতার আশঙ্কায় স্থানীয়রা

কুতুবদিয়ায় ফরহাদ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

রামুতে স্বামী -স্ত্রীকে রাতের অন্ধকারে জবাই করে হত্যা।

সাজেকে পরিবহন শ্রমিক হত্যাকারীদের গ্রেফতারসহ ৩ দফা আল্টিমেটাম ঘোষণা

কোরবানির গরু নিয়ে বাড়ি ফেরা হলোনা সাংবাদিকের নাতি দোহার

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড় ধ্বসে ৯ জনের মৃত্যু

কালীগন্জে নবনির্মিত ব্রীজ নিয়ে এলাকাবাসীর চরম দুর্ভোগ

কোরআনের আলোকে কোরবানির ১০ শিক্ষা

বাবা দিবসে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ভাবনা

ছাত্রদলের ২৬০ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা

সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ক্রাফট ইন্সট্রাক্টরগণের যথাযথ মূল্যায়ন ও পদায়ন জরুরি -জুবায়েদ মোস্তফা

দোয়ারাবাজারে ভারিবর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে একাধিক স্থানে বেড়িবাঁধ ভাঙ্গন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন : ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি