ঢাকারবিবার , ১৬ জুনe ২০২৪
  1. সর্বশেষ
  2. সারা বাংলা

টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত

প্রতিবেদক
নিউজ ভিশন
১৪ নভেম্বর ২০১৯, ১১:১৯ অপরাহ্ণ

Link Copied!

ফরহাদ আমিন:
টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে একাধিক মামলার পলাতক আসামি রোহিঙ্গা ডাকাত মাহমুদুল হাসান নিহত হয়েছে।বুধবার দিবাগত রাতে টেকনাফের হ্নীলা ইউপির শালবন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাহাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।নিহত হ্নীলা ইউপি নয়াপাড়ার শরণার্থী মুচনি ক্যাম্পের এইচ ব্লকের বাকার আহমেদের ছেলে মাহমুদুল হাসান(৪১)।আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন,কনস্টেবল মৃত্যুঞ্জয় শাহীন ও সাইফুল ।
টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়,টেকনাফের শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাহাড়ি এলাকায় শীর্ষ রোহিঙ্গা ডাকাত জকির তার সদস্যদের নিয়ে অবস্থান করছে।এমন সংবাদে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেদুয়ানের নেতৃত্বে মডেল থানার পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযানে যায়।পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা তাদের ওপর গুলি বর্ষণ করে।আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়।পরে ডাকাতরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আহত ওই ডাকাতকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়।প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।সেখানে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।নিহত মাহমুদুল হাসান শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডাকাত সর্দার মো.জকিরের সহযোগী।ঘটনাস্থল থেকে১টি বিদেশি পিস্তল,৩টি এলজি,২টি ম্যাগজিন,১৮রাউন্ড গুলি ও ১৩রাউন্ড কার্তুজসহ১৫রাউন্ড কার্তুজের খালি খোসা উদ্ধার করা হয়।এ ঘটনায় তিন পুলিশ আহত হয়েছেন।
টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক জাকারিয়া মাহামুদ বলেন,রাতে আহত তিন পুলিশসহ গুলিবিদ্ধ একজনকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়। আহত পুলিশ সদস্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।ওসি প্রদীপ কুমার দাশ আরো বলেন,মাহমুদুলের বিরুদ্ধে মাদক ও অস্ত্র মামলা রয়েছে।তার মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

56 Views

আরও পড়ুন