সত্যিকারের মানুষ হতে হবে

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ৭:০৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১২, ২০১৯

———————-
আমরা সবাই বড় হই, হই ডাক্তার, প্রকৌশলী,শিক্ষক কিংবা ব্যবসায়ী। এগিয়ে চলে প্রতিটি মানুষ। আমরা সবাই স্বপ্ন দেখি কিন্তু বাস্তবায়নের চেষ্টাটুকুও করি না।
বাংলাদেশের বেশিরভাগ মানুষই দরিদ্র। দরিদ্র হওয়াটা দোষের কিছু নয় কিন্তু এই দরিদ্রতাকে পুঁজি করে কর্মবিমুখ হয়ে ভিক্ষা করাটা অবশ্যই দোষের। মানুষের দারিদ্র থাকতে পারে থাকেও। উন্নত দেশগুলোতে ভিক্ষুক আছে তবে তাদের ভিক্ষার ধরণ ভিন্ন। তারা আমাদের দেশের ভিক্ষুকদের মতো ভিক্ষা করে না।
তারাসামনে একটি থালা নিয়ে নিঃশব্দে বসে থাকে।
এটাই তাদের ভিক্ষার ধরণ। আর আমাদের দেশের মতো তাদের দেশে হাজার হাজার ভিক্ষুক নেই।

জাতির ভাগ্য নিয়ন্ত্রণে সবচেয়ে বড় হাত সরকারের। সরকারের আশেপাশে থেকে যদি কেউ দুর্নীতি করে তবে সে দায় সরকারের নয়।তবে সেই দুর্নীতিবাজদের প্রতিহত করা সরকারের দায়িত্ব। শুধু সরকারের বললে ভুল হবে বরং সকলের। আপনি, আমি,আমরা যদি সচেতন হই আর সরকার যথাযথ পদক্ষেপ নেয় তবে দুর্নীতি সমূলে বিতাড়িত হতে বাধ্য।
আজ সমাজের প্রতিটি স্তরের ক্ষমতাসীনরাই বেশি অপরাধপ্রবন হচ্ছে। কোথায় এসে দাঁড়িয়েছে আজকের সমাজ? মাদ্রাসার অধ্যক্ষ থেকে শুরু করে বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারি -বেসরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীরা আজ নিজের ঘরে বউ রেখে হাত বাড়াচ্ছে অন্য মহিলার দিকে। একবার ওই মহিলার জায়গায় নিজের পরিবারের মেয়েলোককে ভাবুন, দেখুন আপনার কি করতে ইচ্ছা করে। আশা করি উত্তর পেয়ে যাবেন।
মানুষ কেমন করে নিজের সন্তানকে হত্যা করে।কোনো পিতার পক্ষে এটা সম্ভব নয়। তাই আমরা এদেরকে পিতা বলতে পারি না।দেশের প্রতিটি স্তরে যে দুর্নীতি ও অনাচার দানা বেঁধে উঠেছে সেই অনাচার রুখতে হলে প্রত্যেককে সত্যিকারের মানুষ হতে হবে।
আমরা আমাদের দেশকে নিয়ে স্বপ্ন দেখব এবং তা বাস্তবায়নের পথে এগিয়ে যাব। আর তার জন্য সর্বপ্রথম আমাদেরকে আমাদের চিন্তার দারিদ্র্য থেকে পুরোপুরিভাবে বের হয়ে আসতে হবে। নারীদের স্বাধীনভাবে বেঁচে থাকার অধিকারটি দিতে হবে। নারীকে দেখলে মাল নয় বরং মা বলা শিখতে হবে। নারীর যে মর্যাদা ইসলাম দিয়েছে তার অবমাননা করা যাবে না। সন্ত্রাসী ও দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ন্যায় ও নীতির যুদ্ধে সরকারকে সমর্থন করতে হবে। দুর্নীতি প্রতিরোধে সবাইকে নিঃস্বার্থভাবে এগিয়ে আসতে হবে।
সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে দুর্নীতি,ধর্ষণ ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে।
সর্বোপরি প্রতিটি নাগরিককে মানবিক বোধে পূর্ণ সত্যিকারের মানুষ হতে হবে।

লেখক,
তানভীর আহমেদ
শিক্ষার্থী,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।