শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে প্রণোদনা বিতরণ করা হোক

নিউজ নিউজ

ভিশন ৭১

প্রকাশিত: ৯:৫৯ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৫, ২০২০

জাকির হাসান


ইউজিসির ৪৫ তম বার্ষিক প্রতিবেদন (২০১৮) অনুযায়ী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থীর পিছনে সরকারের বার্ষিক ব্যয় ১ লাখ ৮৭ হাজার ৯০২ টাকা তখন শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৩৭৯৮৪ জন। হিসাব অনুযায়ী প্রতিমাসে একজন শিক্ষার্থীর পিছনে ব্যয় ১৫ হাজার ৬৫৮ টাকা এবং ৩ মাসে একজন শিক্ষার্থীর ব্যয় দাঁড়ায় ৪৬ হাজার ৯৭৫ টাকা।

কোভিড ১৯ মহামারি দেশে ছড়িয়ে পড়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ৯ এপ্রিল ২০২০ থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এ কারনে ৩ মাসের ও বেশি সময় শিক্ষার্থীরা বাসায় অবস্থান করছে। আর এই সময়ে নিশ্চয়ই প্রতি শিক্ষার্থী পিছনে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ৪৬ হাজার ৯৭৫ টাকা ব্যয় করেনি।

 লেখকঃ আসিফ


আমর জানা মতে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকাংশ শিক্ষার্থী গ্রাম থেকে  উঠে আসা। কোভিড ১৯ মহামারি ও বন্যা পরিস্থিতির কারণে অনেকের পরিবারের আয় কমে গেছে। এর মধ্যেই ১ জুলাই থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নির্দেশে বিভিন্ন ডিপার্টমেন্ট অনলাইন ক্লাস চালু করে। ফলশ্রুতিতে যেসকল শিক্ষার্থীর পরিবার নিজেদের প্রয়োজনীয় ব্যয় পরিচালনা করতে পারছেনা, তাদের জন্য ডাটা প্যাকেজ বা স্মার্টফোন কিনে অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করা ‘মরার উপর খাড়ার ঘা’ এ পরিণত হয়েছে।

জানা গেছে, গতকাল ২৩ জুলাই সিনেট অধিবেশনে প্রতি শিক্ষার্থীকে ২০ হাজার টাকা করে প্রণোদনা দেওয়ার প্রস্তাব রাখা হয়েছে। যদিও পরবর্তীতে এই সিদ্ধান্তে নাকচ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। কিন্তু বাস্তবিক অর্থে এই প্রস্তাব নিঃসন্দেহে যথার্থ ও যুক্তিসঙ্গত। এমন সিদ্ধান্ত না নেওয়া হলেও বিশ্ববিদ্যালয় তহবিল কিংবা ইউজিসির পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের প্রতি সদয় দৃষ্টি রাখা উচিত। পাশাপাশি এটা যেন শুধু সিদ্ধান্ত আকারে না থেকে দ্রুত কার্যকর করা হয় সেইদিকে সকলের খেয়াল রাখা উচিত।

 

শিক্ষার্থী, ঢাকা  বিশ্ববিদ্যালয়।